বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বঙ্গভঙ্গের দাবি ঘিরে উত্তাল রাজ্য রাজনীতি, এবার সৌমিত্রের বিরুদ্ধে FIR তৃণমূলের
সৌমিত্র খাঁ। ফাইল ছবি
সৌমিত্র খাঁ। ফাইল ছবি

বঙ্গভঙ্গের দাবি ঘিরে উত্তাল রাজ্য রাজনীতি, এবার সৌমিত্রের বিরুদ্ধে FIR তৃণমূলের

  • তৃণমূলের অভিযোগ, সৌমিত্রের মন্তব্য উসকানিমূলক, তা আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটাতে পারে।

উত্তরবঙ্গকে পৃথক রাজ্য করার দাবি তোলায় বিজেপি সাংসদ জন বার্লার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা হয়েছে রাজ্যে। জন বার্লার পথে হেঁটেই রাঢ়বঙ্গকে আলাদা রাজ্য করা নিয়ে মন্তব্য করেছিলেন বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। সেই মন্তব্যের জেরে সৌমিত্রের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করল তৃণমূল কংগ্রেস। আলিপুরদুয়ারের জেলা যুব তৃণমূল সভাপতি বাবলু কর এই এফআইআর দায়ের করেছেন। তাঁর অভিযোগ, সৌমিত্রের মন্তব্য উসকানিমূলক, তা আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটাতে পারে। এই মর্মে আলিপুরদুয়ার থানায় দায়ের হয়েছে অভিযোগ।

উত্তরবঙ্গ আলাদা রাজ্য হোক, প্রস্তাব দিয়েছেন বিজেপি সাংসদ জন বার্লা। এই দাবি ঘিরে তৈরি হয় তুমুল বিতর্ক। সেই বিতর্কের মাঝেই সৌমিত্র খাঁ দাবি করেন, পৃথক রাজ্য হোক জঙ্গলমহল। সৌমিত্র বলেন, 'আমাদের এলাকার সাধারণ মানুষ বঞ্চিত। রাঢ়বঙ্গের যুবকদের কর্মসংস্থান নেই। আমাদের এলাকার সম্পত্তি রাজ্য সরকারের কোষাগারে যাচ্ছে। কিন্তু আমাদের এলাকার মানুষ কিছু পাচ্ছে না। আগামী দিনে রাঢ়বঙ্গে এই দাবি (পৃথক রাজ্য) উঠতে পারে।'

এদিকে সৌমিত্রের মন্তব্য থেকে নিজেদের দূরে সরিয়ে রেখেছে বিজেপি। রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু এই বিষয়ে বলেন, 'রাঢ়বঙ্গকে পৃথক রাজ্য করার যে দাবি জানানো হয়েছে, তা দলের বক্তব্য নয়। এটা সৌমিত্র খাঁ-র ব্যক্তিগত বক্তব্য। তবে, রাঢ়বঙ্গকে নিয়ে যে অবহেলার অভিযোগ করেছেন সৌমিত্র, তাকে আমি সমর্থন করি। জঙ্গলমহলের জেলা বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার মানুষকে সব সময় অবহেলা করেছে রাজ্য সরকার। এই জেলাগুলির জন্য পৃথক উন্নয়ন বোর্ড গঠন করা উচিত রাজ্যের। জঙ্গমহলের জন্য অবিলম্বে পৃথক প্যাকেজও ঘোষণা করা উচিত।'

 

বন্ধ করুন