বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > আগুনে দাউদাউ করে জ্বলে উঠল চলন্ত গাড়ি, লাফ দিয়ে প্রাণে বাঁচলেন চালক
আগুন লেগে যাওয়া সেই গাড়ি। নিজস্ব ছবি।
আগুন লেগে যাওয়া সেই গাড়ি। নিজস্ব ছবি।

আগুনে দাউদাউ করে জ্বলে উঠল চলন্ত গাড়ি, লাফ দিয়ে প্রাণে বাঁচলেন চালক

  • দমকল কর্মী এবং সেনাবাহিনীর তৎপরতায় গাড়ির আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

মাঝরাস্তায় ঘটল বিপত্তি। দাউদাউ আগুনে জ্বলে উঠল চলন্ত গাড়ি। কোনও ভাবে গাড়ি থেকে লাফ দিয়ে প্রাণে বাঁচলেন চালক। সোমবার দুপুরে এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো শিলিগুড়ি ব‍্যাঙডুবি সেনা ছাউনির কাছে। দমকল কর্মী এবং সেনাবাহিনীর তৎপরতায় গাড়ির আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

জানা যাচ্ছে, ওই গাড়িতে সিমেন্ট ভর্তি ছিল। ছোট ওই মালবাহী গাড়ি নিয়ে বাগডোগরা থেকে রত্নাগাঁও এর দিকে যাচ্ছিলেন চালক। সেই সময় আচমকা গাড়ি থেকে ধোঁয়া বের হতে শুরু করে। প্রথমে তিনি খুব বেশি গুরুত্ব না দিয়ে গাড়ি বন্ধ না করে চালিয়ে যান। কিন্তু, কিছুটা রাস্তা যাওয়ার পরেই ঘটে বিপত্তি। আচমকাই আগুন ধরে ওঠে গাড়ির সামনের ইঞ্জিনে। তৎক্ষণাৎ গাড়ির গতি কমিয়ে দিয়ে তিনি চলন্ত গাড়ি থেকে লাফ দেন। 

যে জায়গায় ঘটনাটি ঘটেছে তার পাশেই রয়েছে সেনা ছাউনি। বিষয়টি জানার পরে জল দিয়ে গাড়ির আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন সেনারা। খবর পেয়ে দমকলের একটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে আগুনে গাড়ির ইঞ্জিন সহ সামনের অংশ পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে যায়।

যদিও চালকের দাবি শর্ট সার্কিটে ফলেই এই আগুন লেগেছে। তবে যে গাড়িতে আগুন লেগেছে তার ইঞ্জিন সামনে দিকে থাকলেও জ্বালানি তেল বা ডিজেল পিছনের অংশেই থাকে। ফলে ইঞ্জিনে বা ব্যাটারিতে কোনওভাবে শর্ট সার্কিট হওয়ার ফলে এই আগুন লেগে থাকতে পারে বলেই মনে করছেন দমকলের আধিকারিকরা।

গাড়িচালক বলেন, 'আমি গাড়ি চালিয়ে আসছিলাম। তখনই গাড়ি থেকে ধোঁয়া বের হতে দেখি। গাড়ি গতি কমিয়ে দিতেই তাতে আগুন ধরে যায়। গাড়ি থেকে লাফ দিয়ে প্রাণে বেঁচেছি। এর পরেই আমি পুলিশকে খবর দিই।'

 

বন্ধ করুন