বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সাঁকরাইলের কারখানায় ভয়াবহ আগুন, লেলিহান শিখা, কী মজুত করা হয়েছিল ?
আগুনের লেলিহান শিখা ও কালো ধোঁয়া উঠছে কারখানার ভেতর থেকে  (নিজস্ব চিত্র )
আগুনের লেলিহান শিখা ও কালো ধোঁয়া উঠছে কারখানার ভেতর থেকে  (নিজস্ব চিত্র )

সাঁকরাইলের কারখানায় ভয়াবহ আগুন, লেলিহান শিখা, কী মজুত করা হয়েছিল ?

  • প্রশাসন ঠিকঠাক ভূমিকা পালন করেনি। আমরা এনিয়ে বার বার বলেছি। প্রশাসন আরও একটু তৎপর হলে, আরও দমকলের গাড়ি নিয়ে এলে পরিস্থিতি এতটা ভয়াবহ হত না।

হাওড়ার সাঁকরাইলের চিপস তৈরির কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড। স্থানীয় সূত্রে খবর, বুধবার দুপুরে প্রথমে কারখানার একটি মেশিনে আগুন লাগে। এরপর সেই আগুন ক্রমেই ছড়িয়ে পড়তে থাকে। দূর থেকেও দেখা যায় কারখানা থেকে দাউ দাউ করে আগুনের লেলিহান শিখা বেরিয়ে আসছে। কালো ধোঁয়াতেও আকাশ ছেয়ে যায়। স্থানীয় বাসিন্দারাই প্রথমে আগুন নেভানোর কাজে হাত লাগান। পরে দমকল ও পুলিশ কর্মীরা আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন। দমকলের ৬টি ইঞ্জিন আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজ শুরু করে। তবে এদিন বিকাল পর্যন্ত আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। এদিকে পাশাপাশি এলাকাতেও আগুন ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। পার্শ্ববর্তী এলাকায় যাতে আগুন না ছড়িয়ে পড়ে সেটা নিশ্চিত করার চেষ্টা করে দমকল। এদিকে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাকে ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য় ছড়ায় এলাকায়। দমকল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার সবরকম চেষ্টা হচ্ছে। 

স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, দুপুর ১২টা নাগাদ আলমপুরের ওই চিপস তৈরির কারখানায় আচমকাই আগুন লেগে যায়। ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি তৈরি হয়। ফায়ার ব্রিগেডকে খবর দিয়েছিলাম। পুলিশও আসে। কিন্তু কীভাবে আগুন লাগল তা বোঝা যাচ্ছে না। তবে এর ভেতরে অনেক দাহ্য পদার্থ মজুত করা ছিল মনে হচ্ছে। প্রশাসন ঠিকঠাক ভূমিকা পালন করেনি। আমরা এনিয়ে  বার বার বলেছি। প্রশাসন আরও একটু তৎপর হলে, আরও দমকলের গাড়ি নিয়ে এলে পরিস্থিতি এতটা ভয়াবহ হত না। 

 

বন্ধ করুন