বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কাঁকড়া ধরতে গিয়ে ফের বাঘের মুখে মৎস্যজীবী, শোকের ছায়া সুন্দরবনে
মৃত বাবুলাল রপ্তান। ছবি: সংগৃহীত
মৃত বাবুলাল রপ্তান। ছবি: সংগৃহীত

কাঁকড়া ধরতে গিয়ে ফের বাঘের মুখে মৎস্যজীবী, শোকের ছায়া সুন্দরবনে

  • স্ত্রী কাঞ্চন, পুত্র সাগর এবং বৃদ্ধা মা কালিদাসীকে নিয়ে অভাবের সংসার ছিল বাবুলালের। জঙ্গলে কাঁকড়া ধরেই সংসার চলত তাঁদের।

ফের বাঘের থাবায় প্রাণ হারাতে হল এক মৎস্যজীবীকে। সুন্দরবন কোস্টাল থানার ‌মরিচঝাঁপি জঙ্গলে ঘটনাটি ঘটে বৃহস্পতিবার সকালে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতের নাম বাবুলাল রপ্তান। বয়স ৩০ বছরের কমবেশি।

স্ত্রী কাঞ্চন, পুত্র সাগর এবং বৃদ্ধা মা কালিদাসীকে নিয়ে অভাবের সংসার ছিল বাবুলালের। জঙ্গলে কাঁকড়া ধরেই সংসার চলত তাঁদের। পেটের টানেই বৃহস্পতিবার সকালে সুন্দরবন কোস্টাল থানার কুমিরমারি গ্রাম থেকে একটি নৌকো নিয়ে কেনারাম মণ্ডলের সঙ্গে কাঁকড়া ধরতে মরিচঝাঁপির চিলমারী খালে ঢুকেছিলেন বাবুলাল। কেনারাম জানিয়েছেন, কাঁকড়া ধরার সময় আচমকা জঙ্গল থেকে বেরিয়ে একটি বাঘ বাবুলালের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। তাঁকে মুখে করে তুলে নিয়ে জঙ্গলের মধ্যে চলে যায় বাঘটি। বেগতিক দেখে তিনি চিৎকার শুরু করেন। নানা কায়দা করে বাঘ তাড়িয়ে বাবুরামকে উদ্ধারও করেন কেনারাম।

ওই মৎস্যজীবীকে উদ্ধারের পর তাঁকে কুমিরমারির বুধবারের বাজারে নিয়ে আসেন কেনারাম ও কয়েকজন গ্রামবাসী। তাঁকে দেখতে ওই বাজারে ভিড় জমে যায়। হঠাৎ এই মর্মান্তিক ঘটনায় বাবুরামের পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এদিকে, ওই মৎস্যজীবীদের গভীর জঙ্গলে যাওয়ার অনুমতি ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে বন দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে।

বন্ধ করুন