বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ফের দলবদলের প্রস্তাব, প্রশান্ত কিশোরের মুখের ওপর না বললেন চাকুলিয়ার বাম বিধায়ক
প্রশান্ত কিশোর। ফাইল ছবি
প্রশান্ত কিশোর। ফাইল ছবি

ফের দলবদলের প্রস্তাব, প্রশান্ত কিশোরের মুখের ওপর না বললেন চাকুলিয়ার বাম বিধায়ক

  • এদিকে, দলবদলের প্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে আই-প্যাকের তরফ থেকে। এক সদস্য জানিয়েছেন, ইমরানই আগে তৃণমূলের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন।

রাজ্যের প্রাক্তন তথ্য–প্রযুক্তি মন্ত্রী দেবেশ দাসের পর এবার উত্তর দিনাজপুরের ফরওয়ার্ড ব্লকের বিধায়ক আলি ইমরান রামজ। মন্ত্রীত্বের টোপ দিয়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রশান্ত কিশোরের টিম আই-প্যাকের বিরুদ্ধে। যদিও দেবেশবাবুর মতো ইমরানও সেই প্রস্তাব সঙ্গে সঙ্গে ফিরিয়ে দিয়েছেন বলে তাঁর দাবি।

উত্তর দিনাজপুরের চাকুলিয়া বিধানসভা থেকে ৩ বার নির্বাচিত আলি ইমরান রামজ এলাকা ও রাজনৈতিক মহলে ভিক্টর নামেই পরিচিত। বিধানসভায় সুবক্তা ভিক্টর জানান, জুলাই মাসে বহু বার প্রশান্ত কিশোরের আই–প্যাক থেকে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। প্রতিবারই তিনি এড়িয়ে যান। সেই মাসেই কলকাতায় এক অভিজাত রেস্তোরাঁয় সস্ত্রীক নৈশভোজে গিয়েছিলেন ইমরান। আর তা জানতে পেরে খোদ প্রশান্ত কিশোর তাঁকে ফোন করে সাক্ষাৎ করতে চান। তখন আর এড়িয়ে যেতে পারেননি ইমরান।

ওই রেস্তোরাঁয় বসেই দু’‌জনের কথাবার্তা হয়। ইমরানের দাবি, তখন প্রশান্ত কিশোর তাঁকে ‘‌অফার’‌ দেন, তৃণমূলের টিকিটে জিতলে তাঁর পছন্দের যে কোনও তিনটি দফতরের মধ্যে একটিতে তাঁকে মন্ত্রী করা হবে। কিন্তু ইমরান ওরফে ভিক্টর পরিষ্কার জানিয়ে দেন, এ পর্যন্ত ১০ বারের বেশি তৃণমূল থেকে দলবদলের প্রস্তাব পেয়েছি। ওরা ২০১৪ ও ২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে টিকিটও দিতে চেয়েছিল। কিন্তু রাজি হইনি। এবারও হব না।

এদিকে, দলবদলের প্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে আই-প্যাকের তরফ থেকে। এক সদস্য জানিয়েছেন, ইমরানই আগে তৃণমূলের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। তাঁর শর্ত মানা হয়নি বলেই এখন এ ধরনের কথা বলছেন।

বন্ধ করুন