বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ভুয়ো স্বর্ণ মুদ্রা বিক্রির অভিযোগে ধৃত ৪, বাজেয়াপ্ত টাকা-অস্ত্র
ভুয়ো স্বর্ণ মুদ্রা বিক্রির অভিযোগে ধৃত ৪, বাজেয়াপ্ত টাকা-অস্ত্র। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
ভুয়ো স্বর্ণ মুদ্রা বিক্রির অভিযোগে ধৃত ৪, বাজেয়াপ্ত টাকা-অস্ত্র। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

ভুয়ো স্বর্ণ মুদ্রা বিক্রির অভিযোগে ধৃত ৪, বাজেয়াপ্ত টাকা-অস্ত্র

বৃহস্পতিবার রাতে সিউড়ির দমদমা গ্রাম থেকে ওই চার অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়।

নকল স্বর্ণ মুদ্রা উদ্ধার হল সিউড়িতে। একইসঙ্গে উদ্ধার হয়েছে বিপুল পরিমাণে নগদ টাকা ছাড়াও কার্তুজ-সহ আগ্নেয়াস্ত্র। নকল সোনার কয়েন বিক্রি করার অভিযোগে বীরভূম থেকে ৪ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করল সিউড়ি থানার পুলিশ। নকল সোনার কয়েন উদ্ধারের অভিযানে নেমে বড় সড় সাফল্য পেল সিউড়ি থানার পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে সিউড়ির দমদমা এলাকায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পশ্চিম বর্ধমানের কুলটির বাসিন্দা পরিমল মণ্ডল থানায় অভিযোগ জানান যে, বীরভূমের বাসিন্দা কয়েকজন যুবক তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করে সোনার কয়েন বিক্রির প্রস্তাব দেয়। কয়েকদিন আগেই পরিমল বীরভূমের সিউড়িতে গিয়ে ওই যুবকদের কাছ থেকে কয়েক লাখ টাকার মুদ্রা কিনে আনেন। পরে তিনি ওই মুদ্রাগুলো পরীক্ষা করে দেখেন, সবকটা কয়েনই নকল। এরপরই সিউড়ি থানার দ্বারস্থ হন পরিমল। অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নামে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার রাতে সিউড়ির দমদমা গ্রাম থেকে ওই চার অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃতদের কাছ থেকে প্রচুর নকল সোনার কয়েন ও একটি আগ্নেয়াস্ত্র ছাড়াও চারটি কার্তুজ উদ্ধার করে পুলিশ। এই প্রসঙ্গে জেলার পুলিশ সুপার নগেন্দ্রনাথ ত্রিপাঠী জানান, গত তিনদিন আগে নকল সোনার কয়েন কিনে প্রতারিত হন বর্ধমানের কুলটির বাসিন্দা পরিমল মণ্ডল। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত চার দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করেছে সিউড়ি থানার পুলিশ।

বন্ধ করুন