বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Joynagar Incident: মর্মান্তিক দুর্ঘটনা জয়নগরে, গ্যাস বেলুন সিলিন্ডার ফেটে একসঙ্গে চারজনের মৃত্যু

Joynagar Incident: মর্মান্তিক দুর্ঘটনা জয়নগরে, গ্যাস বেলুন সিলিন্ডার ফেটে একসঙ্গে চারজনের মৃত্যু

কয়েকজন আহত হয়েছেন।

জলসা চলাকালীন বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয়। গ্যাস বেলুনের সিলিন্ডার ফেটে যায়। আর তার জেরে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হল গ্যাস বেলুন বিক্রেতা মুচিরাম হালদারের। তখন রক্তাক্ত অবস্থায় ছিটকে পড়েন আরও বেশ কয়েকজন মানুষ। গোটা গ্রামে হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। ছুটে এসে স্থানীয় মানুষরা উদ্ধার করে নিয়ে যান হাসপাতালে। 

জয়নগরে গ্যাস বেলুনের সিলিন্ডার ফেটে মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে চারজনের। এই ঘটনায় একদিকে আলোড়ন পড়ে গিয়েছে। অন্যদিকে শোকের আবহ তৈরি হয়েছে। এই সিলিন্ডার ফাটার জেরে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তার মধ্যে দু’‌জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাঁদেরকে কলকাতায় স্থানান্তরিত করা হয়েছে। কেমন করে দুর্ঘটনা ঘটল?‌ খতিয়ে দেখছে জয়নগর–বকুলতলা থানার পুলিশ। মৃতদের মধ্যে এক কিশোর এবং গ্যাস বেলুন বিক্রেতাও রয়েছেন।

ঠিক কী ঘটেছে জয়নগরে?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, রবিবার রাতে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। জয়নগরের রাজাপুর–করাবেগ গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত বাটরা গ্রামে রবিবার রাতে ধর্মীয় অনুষ্ঠান চলছিল। একইসঙ্গে চলছিল জলসাও। তাই সেখানে প্রচুর জনসমাগম হয়েছিল। এই পরিস্থিতিতে রাস্তার ধারে বিভিন্ন ধরনের দোকানও বসেছিল। তারই মধ্যে গ্যাস বেলুন বিক্রি করছিলেন মুচিরাম হালদার নামে এক ব্যক্তি। হঠাৎই সেই গ্যাস বেলুন ফোলানোর সিলিন্ডারে বিস্ফোরণ ঘটে। আর তার জেরে চারজনের মৃত্যু হয়। আজ সোমবার সকাল থেকে শোকের ছায়া গোটা গ্রামে।

তারপর ঠিক কী ঘটল?‌ এদিকে জলসা চলাকালীন বিকট শব্দে বিস্ফোরণ হয়। গ্যাস বেলুনের সিলিন্ডার ফেটে যায়। আর তার জেরে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হল গ্যাস বেলুন বিক্রেতা মুচিরাম হালদারের। তখন রক্তাক্ত অবস্থায় ছিটকে পড়েন আরও বেশ কয়েকজন মানুষ। গোটা গ্রামে হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। ছুটে এসে স্থানীয় মানুষরা উদ্ধার করে নিয়ে যান হাসপাতালে। কিন্তু চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই ঘটনার জেরে গোটা গ্রামে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়েছে। আজ সকাল থেকে শুধুই ঘটনার চর্চা শুরু হয়েছে।

পুলিশ কী তথ্য পেয়েছে?‌ অন্যদিকে পুলিশ সূত্রে খবর, এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত চারজনের মৃত্যু হয়েছে। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন কুতুবউদ্দিন মিস্ত্রি (৩৬), শাহিন মোল্লা (১৪) এবং আবির গাজি। তাছাড়া আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও অন্তত ১০জন আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ঘটনাস্থলে পৌঁছয় জয়নগর এবং বকুলতলা থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। কীভাবে দুর্ঘটনা ঘটল?‌ পুলিশ তার তদন্ত শুরু করেছে। বেলুনের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় জয়নগর থানার আইসি রাকেশ চট্টোপাধ্যায়। কেন অন্যান্য জায়গায় একাধিকবার গ্যাস বেলুন সিলিন্ডার বিস্ফোরণে মৃত্যুর পরেও মেলায় কিংবা অনুষ্ঠানে গ্যাস বেলুন বিক্রেতাদের থাকতে অনুমতি দেওয়া হচ্ছে?‌ উঠছে প্রশ্ন।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন