বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কাজ করছে না মর্গের ফ্রিজার, পচন ধরছে লাশে, বিকট গন্ধে মুখে ভাত উঠছে না অনেকের
 পুলিশ মর্গের অব্যবস্থা নিয়ে নানা অভিযোগ উঠেছে (সংগৃহীত)
 পুলিশ মর্গের অব্যবস্থা নিয়ে নানা অভিযোগ উঠেছে (সংগৃহীত)

কাজ করছে না মর্গের ফ্রিজার, পচন ধরছে লাশে, বিকট গন্ধে মুখে ভাত উঠছে না অনেকের

  • প্রতি মাসে গড়ে ১৪০-১৫০টি করে দেহ পুলিশ মর্গে আসে।

একেবারে নারকীয়কাণ্ড। বালুরঘাট জেলা হাসপাতাল চত্বরে থাকা পুলিশ মর্গে একেবারে চরম অব্যবস্থার অভিযোগ। স্থানীয় সূত্রে খবর, পুলিশ মর্গে থাকা ফ্রিজারগুলি ঠিকঠাক কাজ করছে না। এর জেরে খুব তাড়াতাড়ি দেহে পচন ধরছে। যার জেরে মর্গ থেকে তীব্র দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে এলাকায়। এমনকী মর্গ থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কাও তৈরি হচ্ছে। এনিয়ে উদ্বেগ ছড়িয়েছে এলাকায়। 

 

সূত্রের খবর,  সীমান্ত ঘেঁষা দক্ষিণ দিনাজপুরে বালুরঘাট জেলা হাসপাতাল চত্বরেই রয়েছে পুলিশ মর্গটি। জেলায় এটাই একমাত্র পুলিশ মর্গ। তবে বালুরঘাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে অপর একটি মর্গ রয়েছে। কিন্তু সেখানে ময়না তদন্তের জন্য় আনা দেহগুলি রাখা হয় না। এদিকে পুলিশ মর্গে ৬টি ফ্রিজার রয়েছে। সূত্রের খবর, মাস দেড়েক ধরে সেগুলি ঠিকঠাক কাজ করছে না। এর জেরে দেহ আনার পরের দিন থেকেই দুর্গন্ধ বের হতে শুরু করছে। প্রতি মাসে গড়ে ১৪০-১৫০টি করে দেহ পুলিশ মর্গে আসে। কিন্তু বেশিদিন সেই দেহ রাখা যাচ্ছে না। দেহ পচন ধরে মারাত্মক গন্ধ বের হচ্ছে। এদিকে এনিয়ে মর্গে কর্মীরা বার বার বিভিন্ন মহলে জানিয়েছেন। কিন্তু এখনও পরিস্থিতির কোনও উন্নতি হয়নি বলে বিভিন্ন মহল থেকে দাবি করা হয়েছে।স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, বিকট গন্ধে টেকা যাচ্ছে না। প্রায় মাস দেড়েক ধরে এই পরিস্থিতি চলছে। এবার তো অসুখ ছড়ানো শুরু হবে। তবে জেলা পুলিশের দাবি, সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে। 

 

বন্ধ করুন