বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হরিশ্চন্দ্রপুরে বাজ পড়ে মৃত্যু মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী-সহ ২, আহত ১
হরিশ্চন্দ্রপুরে বাজ পড়ে মৃত্যু মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী-সহ ২, আহত ১: ছবিটি প্রতীকী (‌সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)‌ (HT_PRINT)
হরিশ্চন্দ্রপুরে বাজ পড়ে মৃত্যু মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী-সহ ২, আহত ১: ছবিটি প্রতীকী (‌সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)‌ (HT_PRINT)

হরিশ্চন্দ্রপুরে বাজ পড়ে মৃত্যু মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী-সহ ২, আহত ১

  • মৃত দু’‌জনের নাম পিপলার বাসিন্দা কৌশিক দাস(১৬) ও সুলতান নগর গ্রামের বাসিন্দা নুরুল খান(৪৫)‌। আহত আরেক জন দীপক দাসের বাড়িও পিপলা গ্রামে। গুরুতর অবস্থায় আহতকে চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। সেখানেই আহত ওই ব্যক্তি চিকিৎসাধীর রয়েছেন।

ঝড় বৃষ্টির মধ্যে বাজ পড়ে মৃত্যু হল এক মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী-সহ দু‌’‌জনের। ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১ জন। রবিবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পিপলা ও সুলতান নগর গ্রামে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত দু’‌জনের নাম পিপলার বাসিন্দা কৌশিক দাস(১৬) ও সুলতান নগর গ্রামের বাসিন্দা নুরুল খান(৪৫)‌। আহত আরেক জন দীপক দাসের বাড়িও পিপলা গ্রামে। গুরুতর অবস্থায় আহতকে চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। সেখানেই আহত ওই ব্যক্তি চিকিৎসাধীর রয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সকালে ঝড় বৃষ্টির সময় ওই পিপলা গ্রামের একটি আমবাগানে গিয়েছিলেন কৌশিক। ঝড় বৃষ্টির মধ্যে আচমকা বাজ পড়ে সেখানে। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। মৃতের পরিবার জানা গিয়েছে, মৃত কৌশিক দাস এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী ছিল।ছেলের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে গোটা পরিবারে।

ওদিকে একই সময় ওই এলাকায় দীপক দাস নামের আরেক ব্যক্তিও বাজে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হন। ঘটনাস্থল থেকে তাঁকে উদ্ধার করে চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।

অন্য দিকে, সুলতান নগরের মৃত নুরুল খানের এক আত্মীয় আরিফ বলেন, ‘‌বৃষ্টি পড়ছিল। সেই সময় নুরুল একটু রাস্তায় বেরিয়ে ছিল। সেই সময় হঠাৎ করেই বাজ পড়ে। সঙ্গে সঙ্গে আমরা তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে, চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এদিন ঘটনার বিষয়ে জানতে পেরে মৃত ও আহতের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেন হরিশ্চন্দ্রপুরের তৃণমূল বিধায়ক তাজমূল হোসেন। তিনি বলেন, ‘‌মৃতদের পরিবারকে সমবেদনা জানিয়ে এসেছি। ‌তাঁদেরকে সব রকম ভাবে সরকারি সাহায্য পাওয়ার আশ্বাস দিয়েছি। আরেক জন যিনি আহত হয়েছে, তাঁর চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।’‌

 

বন্ধ করুন