বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ফের ধস নামল কালিম্পংয়ে, সড়কপথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন, নাগাড়ে বৃষ্টির জের
প্রবল ধস পাহাড়ে (ফাইল ছবি )
প্রবল ধস পাহাড়ে (ফাইল ছবি )

ফের ধস নামল কালিম্পংয়ে, সড়কপথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন, নাগাড়ে বৃষ্টির জের

  • কালিম্পং–সিকিমের সঙ্গে শিলিগুড়ির সড়কপথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। যদিও রাস্তা পরিষ্কারের কাজ দ্রুত শুরু করেছে পূর্ত দফতর।

নাগাড়ে বৃষ্টির জেরে সোমবার ফের কালিম্পঙে ধস নামল। তাও আবার মাত্র তিনদিনের মাথায়। কয়েকদিন ধরে উত্তরবঙ্গে নাগাড়ে বৃষ্টি হচ্ছে। আজ সকালে ২৯ মাইলের কাছে ১০ নম্বর জাতীয় সড়কে ধস নামে। আর তাতেই কালিম্পং–সিকিমের সঙ্গে শিলিগুড়ির সড়কপথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। যদিও রাস্তা পরিষ্কারের কাজ দ্রুত শুরু করেছে পূর্ত দফতর। এই ধসের ফলে আতঙ্ক তৈরি হয়।

শুক্রবার কালিম্পংয়ে ধস নেমেছিল। তার জেরে মাটির বাড়ি চাপা পড়ে মৃত্যু হয়েছিল এক বৃদ্ধের। এখন উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টি হচ্ছে। বৃহস্পতিবার দফায় দফায় বৃষ্টির জেরে শিলিগুড়ি থেকে সিকিমগামী ১০ নম্বর জাতীয় সড়কে ফের ধস নেমেছে। কালিম্পংয়ের ২৯ মাইল এলাকাতেও ধস নেমেছে। আটকে পড়েন কয়েকশো পর্যটক। রাস্তার একটি অংশ থেকে শুরু করানো হয় যান চলাচল। দফায় দফায় বৃষ্টি চলছে পাহাড়ে। তার জেরে দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীরা।

উল্লেখ্য, অগস্ট মাসে দার্জিলিংয়ে সেবকের কাছে পাহাড় থেকে গড়িয়ে পড়া বোল্ডারের ধাক্কায় মৃত্যু হয়েছিল সেনাবাহিনীর এক জওয়ানের। ১০ নম্বর জাতীয় সড়কে করোনেশন সেতুর কাছে ধস নামে। তার জেরে যাতায়াত বন্ধ ছিল। তখন প্রথমে শিলিগুড়ি থেকে সেবক পর্যন্ত অটোতে পৌঁছন গোর্খা রেজিমেন্টের জওয়ান রিনচেন তামাং।

দেখা যায়, সেবকে এক কিলোমিটার রাস্তা জুড়ে ধস। আর সেই ফেরার পথেই বিপদ। সেবকের কালীমন্দিরের কাছে একটি বড় বোল্ডার পাহাড় থেকে গড়িয়ে অটোর উপর পড়ে। গুরুতর আহত হন অটো চালক, সেনা জওয়ান ও গাড়ির ড্রাইভার। তাদের উদ্ধার পরে স্থানীয়রা পৌঁছে দেন উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে। পরে ওই জওয়ানের মৃত্যু হয়।

বন্ধ করুন