বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > স্থানীয় তৃণমূল নেতা আর ওসিকে পাত্তা দিই না,হুমকি দিয়ে বিতর্কে জড়ালেন হুমায়ুন
বক্তৃতা রাখছেন হুমায়ুন কবীর। নিজস্ব ছবি।

স্থানীয় তৃণমূল নেতা আর ওসিকে পাত্তা দিই না,হুমকি দিয়ে বিতর্কে জড়ালেন হুমায়ুন

  • ভরতপুর থানার ওসিকে হুমকি দিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছেন তৃণমূল বিধায়ক হুমায়ুন কবীর।

মুকুল রায়কে নিয়ে অস্বস্তির মধ্যেই এবার মুর্শিদাবাদের ভরতপুরের বিধায়ক হুমায়ুন কবীরকে নিয়ে অস্বস্তিতে পড়ল তৃণমূল। ভরতপুর থানার ওসিকে হুমকি দিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছেন তৃণমূল বিধায়ক হুমায়ুন কবীর। হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি দলের স্থানীয় নেতাদের বিরুদ্ধেও তাকে বলতে শোনা গিয়েছে, 'আমি জেলার তৃণমূল নেতাদের তোয়াক্কা করি না। প্রয়োজন বেআইনী কাজ করতেও পিছপা হব না।' এরপরেই তৈরি হয়েছে বিতর্ক। এ নিয়ে ফের মুর্শিদাবাদে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এল। বিষয়টি খতিয়ে দেখে দল ব্যবস্থা নেবে বলে জেলা তৃণমূল নেতা জানিয়েছেন।

একুশের পুরভোটে ব্যাপকভাবে জয় লাভ করার পর আগামী ১ জানুয়ারি থেকে সারা রাজ্যে সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচি চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। মুর্শিদাবাদের ভরতপুরে পৃথক ভাবে এই কর্মসূচি পালন করতে চাইছেন তৃণমূল যুব সভাপতি নজরুল ইসলাম এবং বিধায়ক হুমায়ুন কবীর। জানা যাচ্ছে, এই কর্মসূচী করার জন্য আগেই পুলিশের কাছে অনুমতি নিয়েছেন নজরুল ইসলাম। পরে হুমায়ুন কবীর পুলিশের কাছে অনুমতি চাইতে গেলে ওসি রাজু মুখোপাধ্যায় জানিয়ে দেন, ইতিমধ্যেই তৃণমূলকে এই কর্মসূচির জন্য অনুমতি দেওয়া হয়েছে ফলে দ্বিতীয়বার তার পক্ষে অনুমতি দেওয়া সম্ভব নয়। সে ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ হয়ে যান হুমায়ুন কবীর।

শুক্রবার প্রস্তুতি সভা থেকে ওসিকে উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, 'দালালি বন্ধ না করলে আমি তোমাকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে এখান থেকে বদলি করিয়ে দেব। তোমার চেয়ারে বসে টেবিলে পা তুলে দেব। তুমি নিজেই এখান থেকে চলে যেতে বাধ্য হবে । ভয়ে তুমি আবার ভাটপাড়ায় চলে যাবে।'

এ প্রসঙ্গে জেলা তৃণমূল সভাপতি সায়নী সিংহ রায় বলেন, ' বিধায়ক বিতর্কিত কিছু বললে তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।'

বন্ধ করুন