বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সন্দেহের বশে স্ত্রীকে গলায় গামছার পেঁচিয়ে খুন করেছি, ধরা পড়ে কবুল স্বামীর
ছবি প্রতীকি

সন্দেহের বশে স্ত্রীকে গলায় গামছার পেঁচিয়ে খুন করেছি, ধরা পড়ে কবুল স্বামীর

  • স্ত্রীকে খুনে অশোকনগরে গ্রেফতার স্বামী।

অশোকনগরে বধূ খুনে স্বামীকে গ্রেফতার করল পুলিশ। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে হিজলিয়া মোড় থেকে তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তদন্তকারীদের দাবি, জেরায় অপরাধ কবুল করেছেন তিনি।

গত শনিবার অশোকনগর কল্যাণগড় পুরসভার ২০ নম্বর ওয়ার্ডে আসরাবাদ কলোনিতে খুন হন গৃহবধূ শান্তা বিশ্বাস (৩৭)। তার পর থেকেই নিখোঁজ ছিলেন স্বামী বিশ্বনাথ। প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, স্ত্রীকে সন্দেহ করতেন স্বামী। এই নিয়ে ২ জনের মধ্যে নিত্য বিবাদ লেগে থাকত। দম্পতির একটি কন্যাসন্তান রয়েছে। শুক্রবার তাঁকে বাপের বাড়িতে রেখে আসেন শান্তা। এর পর রাতে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে তুমুল বিবাদ হয়। পরদিন সকালে কয়েবার ঘর থেকে বেরোতে দেখা যায় বিশ্বনাথকে। তার পর গায়েব হয়ে যায় সে।

ওদিকে শান্তাদেবীকে ঘর থেকে বেরোতে না দেখে ডাকাডাকি শুরু করেন স্থানীয়রা। সাড়া না পেয়ে জানলা দিয়ে দেখেন বিছানায় পড়ে রয়েছে তাঁর নিথর দেহ। পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে। শুরু হয় বিশ্বনাথের খোঁজ।

৩ দিন খোঁজাখুঁজির পর মঙ্গলবার হিজলিয়া মোড় থেকে বিশ্বনাথকে গ্রেফতার করে অশোকনগর থানার পুলিশ। জেরায় ধৃত স্বীকার করেছে, সন্দেহের বশে স্ত্রীকে গলায় গামছার ফাঁস দিয়ে খুন করেছে সে।

 

বন্ধ করুন