বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Barrackpore Incident: ব্যাগ কেটে ১০ লক্ষাধিক টাকা হাতসাফাই, রহড়ার ‘বান্টি–বাবলি’ পুলিশের জালে

Barrackpore Incident: ব্যাগ কেটে ১০ লক্ষাধিক টাকা হাতসাফাই, রহড়ার ‘বান্টি–বাবলি’ পুলিশের জালে

ধৃতদের নাম আকবর আলি এবং রাবিয়া বিবি।

আকবর যে স্কুটার চালাত সেটা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ওই স্কুটারে করেই অপারেশন করা হতো। এই চক্রের সঙ্গে আর কেউ জড়িত কি না সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আকবর আর রাবিয়ার বাড়়ি রহড়া থানা এলাকার ঈশ্বরীপুর এলাকায়। এই দম্পতি কেপমারি, লুট, পকেটমারি করে বেড়ায়। তারপরই হাত সাফাই করত। তারা টার্গেট করত প্রবীণদের।

সিনে পর্দার ‘বান্টি আউর বাবলি’র সঙ্গে খুব পার্থক্য নেই আকবর আলি এবং রাবিয়া বিবির। কারণ রুপোলি পর্দায় ছিল ঠগের গল্প। আর ব্যারাকপুর কমিশনারেট এলাকায় এই দম্পতিই মানুষজনকে টুপি পরিয়ে হাতিয়ে নিয়েছে লক্ষ লক্ষ টাকা। সঙ্গে রয়েছে পকেটমারির ঘটনাও। তবে কমিশনারেটের কর্তাদের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে তারা এখন শ্রীঘরে। উদ্ধার হয়েছে মোট ৭৪ হাজার টাকা এবং একটি স্কুটার।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, এই দম্পতির কর্মকাণ্ডে ঘুম উড়ে যায় উত্তর ২৪ পরগনা জেলা পুলিশ ও ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের কর্তাদের। গত কয়েকমাস ধরেই তারা কমিশনারেটের নানা এলাকায় বহু মানুষকে ঠকিয়ে টাকা হাতিয়ে চম্পট দিয়েছে। তারা টার্গেট করত প্রবীণদের। ব্যাঙ্ক থেকে তাঁরা টাকা তুলে বেরলেই পিছু নিত ওই দম্পতি। তারপরই হাত সাফাই করত। উত্তর ২৪ পরগনার নৈহাটি, জেঠিয়া, খড়দা, নিউ ব্যারাকপুর, মধ্যমগ্রাম, বারাসত, হাবড়া–সহ একাধিক থানা এলাকায় তারা অপারেশন চালিয়েছে।

পুলিশ কী তথ্য পেয়েছে?‌ নিউ বারাকপুর থানার পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃতদের নাম আকবর আলি এবং রাবিয়া বিবি। প্রাথমিক তদন্তে উঠে এসেছে, বিভিন্ন থানা এলাকা মিলিয়ে তারা কমপক্ষে ১০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। তাদের জেরা করে মোট টাকার পরিমাণ জানার চেষ্টা চলছে। আকবর যে স্কুটার চালাত সেটা বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ওই স্কুটারে করেই অপারেশন করা হতো। এই চক্রের সঙ্গে আর কেউ জড়িত কি না সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আকবর আর রাবিয়ার বাড়়ি রহড়া থানা এলাকার ঈশ্বরীপুর এলাকায়। এই দম্পতি কেপমারি, লুট, পকেটমারি করে বেড়ায়।

কীভাবে চলত এই দম্পতির অপারেশন? ব্যারাকপুর কমিশনারেট সূত্রে খবর, এই দম্পতির পরনে থাকত সুদৃশ্য পোশাক। আর সঙ্গে স্কুটার। যাতে কেউ কোনও সন্দেহ না করে। এই জুটি বিভিন্ন ব্যাঙ্কের সামনে শিকারের জন্য ঘাপটি মেরে বসে থাকত। ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তুলে কোনও প্রবীণ বের হলেই পিছু নিত। সেই বৃদ্ধ বা বৃদ্ধা অটো কিংবা টোটোয় উঠলে, যাত্রী সেজে তাতেই উঠে পড়ত রাবিয়া। এরপর আলাপ জমাত। আর সুযোগ বুঝে তাঁর ব্যাগে ব্লেড চালিয়ে বের করে নিত টাকা। চলন্ত অটো বা টোটোয় বসেই সেই টাকা চালান করে দিত পিছনে স্কুটারে থাকা স্বামীকে। তবে তাদের হাতেনাতে ধরে ফেলে পুলিশ।

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

‘স্বামী হিসাবে আমার খামতি কোথায়?’ ডিভোর্সের পর কিরণকে প্রশ্ন আমিরের, কী জবাব দেন চোট সারিয়ে ইস্টবেঙ্গলে ফিরছেন অজি ডিফেন্ডার, বিদেশির কোটা পূরণ, খেলবেন কী ভাবে? উচ্চমাধ্যমিকে সাংবাদিকতা পরীক্ষার প্রশ্ন কেমন হল? কঠিন হয়েছে? জানালেন শিক্ষক ১লা মার্চই বাংলায় ১০০ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী, কমিশনের নজরে সন্দেশখালিও জোর করে বিয়ে, উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার মধ্যেই আত্মঘাতী আলিপুরদুয়ারের ছাত্রী ঘূর্ণাবর্ত, পশ্চিমী ঝঞ্ঝার দাপট! বৃষ্টি বহু রাজ্যে, বাংলায় রবিবারও কি বর্ষণ? ভারতের জ্যোতির মুখোমুখি বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা পুরুষ! কোথায় সাক্ষাৎ করলেন দু'জনে কলসি কাঁখে গৃহেপ্রবেশ 'কথা'র, কেমন হল সুস্মিতার নতুন বাড়ি? 'ঈশ্বরের কাছে যত বেশি...' কেক নয়, কৃষ্ণের প্রসাদ খেয়ে জন্মদিন পালন সৌমিতৃষার বর্ধমানে স্কুলের বাইরে মদ খেয়ে রাস্তায় পড়ে আছেন বর্ষীয়ান শিক্ষক!

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.