বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘১৫ মিনিট আগে রাজনীতি ছেড়েছি,’ উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হলেন ওমপ্রকাশ

‘১৫ মিনিট আগে রাজনীতি ছেড়েছি,’ উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হলেন ওমপ্রকাশ

ওমপ্রকাশ মিশ্র। ফাইল ছবি

মপ্রকাশ মিশ্রের নাম যখন উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসাবে মনোনীত করা হয়েছিল তখনই অনেকের মনে নানা প্রশ্ন উঠছিল। সব থেকে বড় কথা তিনি কি রাজনীতির বাইরে গিয়ে কাজ করতে পারবেন সেই প্রশ্নও ওঠে। তবে এবার উপাচার্যের চেয়ারে বসেই কার্যত পোড় খাওয়া রাজনীতিবিদের মতোই সেই প্রশ্নের জবাব দিলেন নিজেই।

উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অপসারিত উপাচার্য সুবীরেশ ভট্টাচার্য বর্তমানে গরাদের ওপারে। এসএসসি কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত তিনি। বৃহস্পতিবার সেই বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্থায়ীভাবে উপাচার্যের দায়িত্ব নিলেন ওমপ্রকাশ মিশ্র। বালুরঘাটে কেটেছে তাঁর ছাত্রজীবনের অনেকটা। সেই ওমপ্রকাশ উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দায়িত্ব পেলেন। কিন্তু শিক্ষামহলে একটা প্রশ্ন বার বারই ঘুরছে আদ্যোপান্ত শাসকদলের এক নেতাকে কেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদে বসানো হল? তবে কি বিশ্ববিদ্যালয়ের যাবতীয় অনিয়মকে ধাপাচাপা দেওয়ার জন্য়ই তাঁকে পাঠানো হল উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে? তবে উপাচার্যের দায়িত্ব নিয়েই এই রাজনীতির বিষয়টি নিজেই খোলসা করে দিলেন তিনি।

তিনি জানিয়ে দেন, উপাচার্য পদে বসার ১৫ মিনিট আগে রাজনীতি ত্যাগ করেছি। এখন আর রাজনীতির সঙ্গে কোনও সম্পর্ক নেই। এভাবেই নিজের অবস্থান পরিস্কার করলেন তিনি। তার সঙ্গে যাবতীয় দ্বন্দ্বেরও সমাধান করলেন নিজেই।

বিগতদিনে কংগ্রেস করতেন ওমপ্রকাশ। সেই সময় বার বার তৃণমূলের বিরুদ্ধে সুর চড়াতেন তিনি। তবে গত বিধানসভা নির্বাচনের আগে তিনি তৃণমূলে নাম লেখান। এরপর শিলিগুড়ি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে তিনি তৃণমূলের টিকিটে ভোটেও লড়েছিলেন। কিন্তু গেরুয়া ঝড়ে ওলটপালট হয়ে যায় ঘাসফুল শিবির। হেরে গিয়েছিলেন ওমপ্রকাশ।

এদিকে সেই ওমপ্রকাশ মিশ্রের নাম যখন উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসাবে মনোনীত করা হয়েছিল তখনই অনেকের মনে নানা প্রশ্ন উঠছিল। সব থেকে বড় কথা তিনি কি রাজনীতির বাইরে গিয়ে কাজ করতে পারবেন সেই প্রশ্নও ওঠে। তবে এবার উপাচার্যের চেয়ারে বসেই কার্যত পোড় খাওয়া রাজনীতিবিদের মতোই সেই প্রশ্নের জবাব দিলেন নিজেই।

 

বন্ধ করুন