বৃহস্পতিবার বিশ্বভারতীর এক অনুষ্ঠানে সস্ত্রীক রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (PTI)
বৃহস্পতিবার বিশ্বভারতীর এক অনুষ্ঠানে সস্ত্রীক রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (PTI)

তোতাপাখির মতো রাজ্যের লেখা ভাষণ পড়ব না, বাজেট অধিবেশনের আগের দিন জানালেন ধনখড়

  • এদিন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় বলেন, ‘রাজ্য সরকারের তৈরি করে দেওয়া ভাষণ কাটছাঁট করার অধিকার আমার রয়েছে।

হেলিকপ্টার দিলেও রাজ্যপালের মান ভাঙাতে পারল না রাজ্য সরকার।

শুক্রবারই শুরু হচ্ছে রাজ্য বিধানসভার বাজেট অধিবেশন। আর তার আগে রাজ্যের সঙ্গে সংঘাতকে চরমে নিয়ে গেলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ঠিক আগের দিন বৃহস্পতিবার, বিশ্বভারতীতে দাঁড়িয়ে জানিয়ে দিলেন, রাজ্যের লেখা ভাষণ অবিকল পড়বেন না তিনি।

বিধানসভার অধিবেশনের শুরুতে রাজ্যপালের রাজ্যের লেখা ভাষণ পড়াই রীতি। এখনো পর্যন্ত তেমন কোনও ব্যতিক্রম হয়নি এরাজ্যে। সম্ভবত এবার সেই প্রথা ভাঙতে চলেছেন রাজ্যপাল। বৃহস্পতিবার বিশ্বভারতীতে তেমন আভাস দিয়েছেন তিনি।

এদিন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় বলেন, ‘রাজ্য সরকারের তৈরি করে দেওয়া ভাষণ কাটছাঁট করার অধিকার আমার রয়েছে। রাজ্যের লেখা ভাষণ আমি প্রয়োজন মতো সংযোজন বিয়োজন করব। প্রয়োজনীয় মনে হলে নিজের পর্যবেক্ষণও বলব।‘

ওদিকে রাজ্য বাজেট নিয়ে সংঘাত বেঁধেছে রাজ্য ও রাজ্যপালের। আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি রাজ্য বিধানসভায় বাজেট প্রস্তাব পেশ করবেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। সেই নথি চেয়ে পাঠিয়েছেন রাজ্যপাল। বাজেটে যে সব বরাদ্দ করা হয়েছে তার অর্থ সংস্থান কোথা থেকে হবে তাও জানতে চেয়েছেন রাজ্যপাল।

যদিও বাজেট সরকারের গোপনীয় বিষয় বলে দাবি করে রাজ্যপালকে দেখাতে অস্বীকার করেছে সরকার। কিন্তু ছাড়ার বান্দা নন রাজ্যপালও। নিজের অবস্থানে অনড় রয়েছেন তিনি।

রাজ্য বিধানসভার অধিবেশন নিয়ে সাধারণত কোনও উত্সাহ না থাকলেও এবার কিন্তু সব চোখ সেদিকেই।



বন্ধ করুন