বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > রাম মন্দিরের ভূমিপুজোর দিন লকডাউন প্রত্যাহার হোক, নাহলে ফল ভুগতে হবে : দিলীপ
রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)
রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)

রাম মন্দিরের ভূমিপুজোর দিন লকডাউন প্রত্যাহার হোক, নাহলে ফল ভুগতে হবে : দিলীপ

  • দিলীপ বলেন, 'আমার মনে হয়, এখনও হাতে সময় আছে। (৫ অগস্ট) লকডাউন তুলে অন্যদিন করা হোক।’

রাম মন্দিরের ভূমিপুজোর দিন সম্পূর্ণ লকডাউন প্রত্যাহার না করলে রাজ্য সরকারকে ফল ভুগতে হবে। এমনই হুঁশিয়ারি দিলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের শৃঙ্খল ভাঙতে চলতি মাসে রাজ্যে সাতদিন সম্পূর্ণ লকডাউনের ঘোষণা করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। সেই তালিকায় রয়েছে আগামী ৫ অগস্টও। যেদিন অয্যোধ্যায় রাম মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাতেই আপত্তি দিলীপের। তাঁর বক্তব্য, ৫ অগস্ট সারা ভারতের কাছে ‘গর্ব’ এবং 'গৌরব'-এর দিন। কিন্তু লকডাউন করলে সেই ‘ঐতিহাসিক’ দিনে বাংলার মানুষ সামিল থাকতে পারার বিষয়টি দুঃখের বলে মন্তব্য করেন দিলীপ। একইসঙ্গে তাঁর হুঁশিয়ারি, ‘যাঁরা রাষ্ট্রীয় দিবসে লকডাউন করছেন, তাঁদের মানুষ সহজে ভুলবেন না। আমার মনে হয়, এখনও হাতে সময় আছে। (৫ অগস্ট) লকডাউন তুলে অন্যদিন করা হোক।’

দিলীপের হুঁশিয়ারি নিয়ে রাজ্য বা তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে এখনও মুখ খোলা হয়নি। তবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, আগামী বিধানসভা ভোটের আগে হিন্দুত্ববাদী হাওয়ায় জোর দিতেই এই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দিলীপ। বিশেষত রাখি পূর্ণিমা এবং গণেশ চতুর্থীর আগের এবং পরেরদিন লকডাউন না থাকায় রাম মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের অনুষ্ঠান ঘিরেই ভোটব্যাঙ্ক শক্তিশালী করতে চাইছেন বলে সংশ্লিষ্ট মহলের মত।

বন্ধ করুন