কলকাতায় কেন্দ্রীয় দলের কনভয়। ফাইল ছবি।
কলকাতায় কেন্দ্রীয় দলের কনভয়। ফাইল ছবি।

রাজ্য সরকারের নিরাপত্তা ছাড়াই পূর্ব মেদিনীপুর পরিদর্শনে কেন্দ্রীয় দল

  • কলকাতা থেকে কনভয় ছুটি সোমবার প্রথমে পাঁশকুড়া যায় কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল। সেখানে একটি বেসরকারি করোনা হাসপাতালের পরিকাঠামো খতিয়ে দেখেন তাঁরা।

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের দেওয়া নিরাপত্তার পরোয়া না করেই রবিবারের পর সোমবারও পরিদর্শনে বেরলো কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল। সোমবার সকালে বিএসএফ-এর নিরাপত্তা নিয়ে পূর্ব মেদিনীপুরের লকডাউন পরিস্থিতি পরিদর্শনে গিয়েছেন তাঁরা। এই ঘটনায় ফের কেন্দ্রীয় দলের সঙ্গে অসহযোগিতা অভিযোগ উঠেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিরুদ্ধে।

সোমবার বেলা ১০টা নাগাদ বালিগঞ্জের বিএসএফ-এর অতিথিশালা থেকে বেরোন কেন্দ্রীয় দলের সদস্যরা। সঙ্গে ছিল বিএসএফ-এর পাইলট ভ্যান ও নিরাপত্তারক্ষীরা। এদিনও কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদলের সঙ্গে রাজ্য সরকারের কোনও নিরাপত্তা বা আধিকারিককে দেখা যায়নি।

কলকাতা থেকে কনভয় ছুটি সোমবার প্রথমে পাঁশকুড়া যায় কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল। সেখানে একটি বেসরকারি করোনা হাসপাতালের পরিকাঠামো খতিয়ে দেখেন তাঁরা। তার পর যান তমলুকে। সেখানে একটি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার পরিদর্শন করে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল।

বলে রাখি, রবিবারও রাজ্য সরকারের নিরাপত্তার পরোয়া না করেই কলকাতা ও হাওড়ার বিস্তীর্ণ এলাকা পরিদর্শন করেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিরা। দক্ষিণ কলকাতার হাজরা, কালীঘাট চত্বরে লকডাউনের চেহারা ঘুরে দেখেন তাঁরা। যান খিদিরপুর ও বেহালাতেও। বিভিন্ন জায়গায় নিয়মভঙ্গের ছবি তুলতে দেখা যায় কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদের। করোনা রেড জোন হাওড়ার গোলাবাড়ি ও সালকিয়া চত্বর ঘুরে দেখেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিরা। এখনো পর্যন্ত প্রতিদিনই পরিদর্শনের পর রাজ্য সরকারকে চিঠি দিয়ে নানা খামতির কথা জানিয়েছে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিদল।



বন্ধ করুন