বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > এবার রাজ্যে ভুয়ো ভাগ্নে! মন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয়ে অফিসে স্বেচ্ছাচার সরকারি কর্মীর
অভিযুক্ত সুমন মাইতি (সোশ্যাল মিডিয়া)
অভিযুক্ত সুমন মাইতি (সোশ্যাল মিডিয়া)

এবার রাজ্যে ভুয়ো ভাগ্নে! মন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয়ে অফিসে স্বেচ্ছাচার সরকারি কর্মীর

  • অভিযুক্ত সুমন মাইতি কৃষি আধিকারিকের অফিসে গ্রুপ ডি পদে কর্মরত। 

সহকর্মীদের তিনি বলতেন যে তিনি নাকি মন্ত্রীর ভাগ্নে। আর সেই কারণে অফিসে আসতেন দুপুর দুটো-তিনটের সময়। অফিসে এসে টেবিলের উপর পা তুলে রাখতেন। সহকর্মীদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করতেন। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার দেশপ্রাণ ব্লকে। সেখানের কৃষি আধিকারিকের অফিসে কাজ করতেন অভিযুক্ত। জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম সুমন মাইতি। অভিযোগ, শুক্রবার সরকারি অফিসে ভাঙচুর চালান সেই কর্মী। তারপর পুলিশ সুমনকে আটক করেন বলে জানা গিয়েছে।

জানা গিয়েছে, সুমন মাইতি কৃষি আধিকারিকের অফিসে গ্রুপ ডি পদে কর্মরত ছিলেন। তিনি নিজেকে রাজ্যের এক মন্ত্রীর ভাগ্নে হিসেবে পরিচয় দিতেন সহকর্মীদের কাছে। দাবি করতেন, যেহেতু তিনি মন্ত্রীর ভাগ্নে, তাই তাঁর ক্ষেত্রে অফিসের কোনও নিয়ম প্রযোজ্য নয়। এই বলে তিনি নিজের ইচ্ছে মতো দুপুর ২ টোর পর অফিসে যেতেন। অফিসে টেবিলের উপর পা তুলে মোবাইলে ভিডিয়ো গেম খেলেন। বারংবার সতর্ক করা হলেও সেদিকে কর্ণপাত করেননি সুমন। কোনও সতর্ক বার্তাই তাঁকে সঠিক পথে আনতে পারেনি। উলটে তিনি সহকর্মীদের সঙ্গে খারাপ আচরণ বজায় রাখেন। অফিসের কোনও নিয়ম মানতে চান না।

এমনই চলছিল বহুদিন ধরে। তবে বৃহস্পতিবার সুমনকে রেজিস্টারে সই করতে বাধা দেন কৃষি আধিকারিক নির্মল কুমার দিন্দা। এরপরই সুমন নাকি অফিসের কম্পিউটার, আসবাবপত্র ভাঙচুর করেন। এরপর শুক্রবার কৃষি আধিকারিক ও অফিসের কর্মরা নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে কাজ করা থেকে বিরত থাকেন। এর জেরে সমস্যায় পড়তে হয় অনেক সাধারণ মানুষকে। এরপর দেশপ্রাণ পঞ্চায়েত সমিতির-সহ সভাপতি তরুণ কুমার জানা, বিডিও শুভজিৎ জানা, কাঁথি থানার আইসি অফিসে এসে আধিকারিক ও কর্মীদের নিরাপত্তার আশ্বাস দিলে ফের স্বাভাবিক গতিতে কাজ শুরু হয়।

বন্ধ করুন