বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সাত বছরে দেশ ছেড়েছেন ৩৫,০০০ শিল্পপতি, নেপথ্যে মোদী আতঙ্ক? আক্রমণ অমিতের
অমিত মিত্র। ফাইল ছবি
অমিত মিত্র। ফাইল ছবি

সাত বছরে দেশ ছেড়েছেন ৩৫,০০০ শিল্পপতি, নেপথ্যে মোদী আতঙ্ক? আক্রমণ অমিতের

  • টুইটে তিনটি রিপোর্ট প্রকাশ করে বিস্ফোরক অভিযোগটি তোলেন অমিতবাবু।

‌প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর শাসনকালে দেশে শিল্পপতিদের আতঙ্কে ভুগতে হচ্ছে। সম্প্রতি কেন্দ্রের মোদী সরকারকে নিশানা করে এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ তুললেন পশ্চিমবঙ্গের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র।

সম্প্রতি টুইটে তিনটি রিপোর্ট প্রকাশ করে বিস্ফোরক অভিযোগটি তোলেন অমিত। টুইটে বিভিন্ন সংস্থার দেওয়া রিপোর্ট তুলে ধরে অমিত জানান, ‘‌২০১৪ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত বিপুল সংখ্যক বিত্তবান উদ্যোগপতি দেশ ছেড়েছেন। ২০১৪ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত দেশ ছেড়েছেন ২৩ হাজার জন। ২০১৯ সালে আরও ৭ হাজার জন দেশ ছেড়েছেন। ২০২০ সালে দেশ ছেড়েছেন আরও ৫ হাজার জন। তাঁরা এখন অন্য দেশে পাড়ি দিয়েছেন। রাজ্যের অর্থমন্ত্রীর প্রশ্ন, কী কারণে এই ধরনের ঘটনা ঘটছে? আতঙ্কে নাকি?‌' একইসঙ্গে কেন্দ্রীয় বাণিজ্যমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের বিরুদ্ধে শিল্পপতিদের অপমান করারও অভিযোগ তুলেছেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী। এই প্রসঙ্গে টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘‌‌খবরে প্রকাশিত হয়েছে পীযূষ তাঁর এক বক্তব্যে দেশের শিল্পমহলকে দেশবিরোধী তকমা দিয়েছেন। শিল্পপতিরা নাকি দেশের স্বার্থবিরুদ্ধ কাজ করছেন। মোদী পীযুষবাবুকে তিরষ্কার করেননি কেন।’‌

এই প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সংসদে শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি তুলেছেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী। এর আগে দেশের অভ্যন্তরীণ উৎপাদন থেকে শুরু করে জিএসটি, সব ইস্যুতে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী। এবার ফের দেশের শিল্পায়ন নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকেই প্রশ্নের মুখে ফেলে দিলেন তিনি। উল্লেখ্য, দেশে ক্ষমতায় আসার পর দেশের তরুণ প্রজন্মকে উদ্যোগপতি হওয়ার বিষয়ে উৎসাহ জুগিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তবে ওয়াকিবহাল মহলের মতে, রাজ্যের অর্থমন্ত্রীর এই রিপোর্ট কেন্দ্রকে যে যথেষ্ট অস্বস্তিতে ফেলবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না

বন্ধ করুন