বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > উপনির্বাচনের আগে উত্তপ্ত দিনহাটায় চলল গুলি, তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে মৃত ২, জখম ৫
দিনহাটায় চলল গুলি, তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে মৃত ২
দিনহাটায় চলল গুলি, তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে মৃত ২

উপনির্বাচনের আগে উত্তপ্ত দিনহাটায় চলল গুলি, তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে মৃত ২, জখম ৫

  • ৩০ অক্টোবর উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে চলেছে কোচবিহারের দিনহাটায়। তার আগেই রক্তাক্ত বাংলাদেশ সীমান্ত সংলগ্ন এলাকা।

আগামী ৩০ অক্টোবর উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে চলেছে কোচবিহারের দিনহাটায়। ভোটের আগে দুর্গাপুজোর আবহে রক্তাক্ত হয়ে উঠল দিনহাটায়। রাজনৈতিক সংঘর্ষে দিনহাটায় রবিবার মৃত্যু হয়েছে দুই জনের। জখম আরও পাঁচ। জানা গিয়েছে মৃতরা তৃণমূল কর্মী। এই সংঘর্ষ তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দরেল জেরে বলে জানা গিয়েছে। মৃত ব্যক্তিদের নাম মান্নান হক এবং মুজফ্ফর হুসেন।

জানা গিয়েছে, দিনহাটার গীতালদহ ২ গ্রাম পঞ্চায়েতে মরাকুঠি এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে অন্তর্দ্বন্দ্ব রয়েছে ঘাসফুল শিবিরের অন্দরে। এখানকার পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে একাধিক বার অনাস্থা এনেছে তৃণমূলেরই অপর এক গোষ্ঠী। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে প্রাক্তন ব্লক সভাপতি নূর আলম হুসেনের দাবি, এই এলাকায় গোষ্ঠী কোন্দল দীর্ঘদিনের। এর জেরেই রবিবার সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে এই সংঘর্ষ প্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমকে কোচবিহারের পুলিশ সুপার সুমিত কুমার জানান, ভারত-বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক সীমান্তের সংলগ্ন মরাকুঠি গ্রামে গুলি চালানোর ঘটনা ঘটে। স্থানীয় বিষয় নিয়ে দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষের জেরেই সেখানে গুলি চলে। পুলিশ আরও জানায়, সংঘর্ষে জাহাঙ্গির আলম নামক একজনের হাত কাটা গিয়েছে। জখম দিলদাল হুসেন আবার গীতালদহ গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য।

এদিকে সংঘর্ষ প্রসঙ্গে মুখে কুলুপ এঁটেছে তৃণমূলের জেলা স্তরের নেতৃত্ব। এদিকে এই সংঘর্ষ নিয়ে তৃণমূলকে পালটা খোঁচা দিতে ছাড়েননি বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর কথায় 'ওখানে সবই দেশবিরোধী। এটা ওখানকার রাজনীতি। এখন এসব করে ভয় দেখানোর চেষ্টা হচ্ছে, যাতে লোকে ভোট দিতে না আসে।'

বন্ধ করুন