বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Bhangar murder case: আম গাছে ঝুলছে ISF কর্মীর দেহ! শাসক দলের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ
আইএসএফ কর্মী খুনের ঘটনায় এলাকায় পুলিশ। নিজস্ব ছবি

Bhangar murder case: আম গাছে ঝুলছে ISF কর্মীর দেহ! শাসক দলের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ

  • স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আজ সকালে আম গাছে শেখ রেজাউলকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তারাই কাশিপুর থানায় এ বিষয়ে খবর দেন। পরে পুলিশ এসে শেখ রেজাউলের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে। তবে সেখানে থেকে উদ্ধার করতে গেলে পুলিশকে স্থানীয়দের বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয়।

ফের খবরে দক্ষিণ ২৪ পরগণার ভাঙড়। এক আইএসএফ কর্মীকে পিটিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠল। এই অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। আজ সকালে আমগাছের সঙ্গে গলায় দড়ি দেওয়া অবস্থায় ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয় ওই যুবকের। ঘটনাটি ঘটেছে কাশিপুর থানার পূর্ব কাঠালিয়া এলাকায়। মৃত যুবকের নাম শেখ রেজাউল (৩৬)। এদিন এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। ঘটনাস্থলে ভিড় করেন এলাকার বহু মানুষ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আজ সকালে আম গাছে শেখ রেজাউলকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তারাই কাশিপুর থানায় এ বিষয়ে খবর দেন। পরে পুলিশ এসে শেখ রেজাউলের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে। তবে সেখানে থেকে উদ্ধার করতে গেলে পুলিশকে স্থানীয়দের বিক্ষোভের মুখে পড়তে হয়। তৃণমূলের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ তুলে গ্রামবাসীরা বেশ কিছুক্ষণ মৃতদেহ আটকে রাখেন। পরে কাশিপুর থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ।

স্থানীয়দের দাবি, রেজাউল গত বিধানসভা থেকে আইএসএফ করছেন। তিনি গত বিধানসভা ভোটে নওশাদ সিদ্দিকীকে সমর্থন করেছিলেন। সেই কারণেই শাসকদলের কর্মী সমর্থকরা তাকে পিটিয়ে খুন করে গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ। আব্দুল রশিদ গাজী নামে স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, ‘ঘটনাস্থলে দশ-বারোটা মদের বোতল পড়েছিল। একজন মানুষের পক্ষে ১০-১২ বোতল মদ খাওয়া সম্ভব নয়। আমাদের অনুমান তাকে পিটিয়ে খুন করে গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। তদন্ত করলেই সত্যি বেরিয়ে আসবে। আমরা চাই এই ঘটনার সঠিক তদন্ত হোক, অপরাধীরা শাস্তি পাক।’ এই ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে কাশিপুর থানার পুলিশ।

বন্ধ করুন