বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ঝাড়ু দিয়ে পদ্মবন সাফ বিজেপি নেতার, জলপাইগুড়িতে আম আদমি পার্টিতে যোগ
আম আদমি পার্টি (ছবি সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস)

ঝাড়ু দিয়ে পদ্মবন সাফ বিজেপি নেতার, জলপাইগুড়িতে আম আদমি পার্টিতে যোগ

  • আম আদমি পার্টি ২০২৩ সালের পঞ্চায়েত নির্বাচনে বাংলায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চায়। ভার্চুয়াল বৈঠকের মাধ্যমে আম আদমি পার্টির জলপাইগুড়ি জেলা কমিটি গঠন হয়। সেখানে মোট ১৪ জনকে রাখা হয়েছে।

আবার অঘটন বিজেপিতে। বিজেপি ছেড়ে সাংসদ–বিধায়ক থেকে নেতা–কর্মীরা তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিচ্ছেন। সেখানে এবার ঝাড়ু হাতে নিয়ে পদ্মবন সাফাইয়ে নামলেন বিজেপির কিষান মোর্চার প্রাক্তন সভাপতি নবেন্দু সরকার। তিনি বিজেপি সংস্রব ত্যাগ করেছেন। আর আম আদমি পার্টির জলপাইগুড়ি জেলা কমিটির ইনচার্জ হলেন। এখানে গঠিত হয়েছে আম আদমি পার্টির জলপাইগুড়ি জেলা কমিটি।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ আম আদমি পার্টি ২০২৩ সালের পঞ্চায়েত নির্বাচনে বাংলায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চায়। ভার্চুয়াল বৈঠকের মাধ্যমে আম আদমি পার্টির জলপাইগুড়ি জেলা কমিটি গঠন হয়। সেখানে মোট ১৪ জনকে রাখা হয়েছে। এই খবর জানিয়েছেন আম আদমি পার্টির নবনিযুক্ত জেলা ইনচার্জ নবেন্দু সরকার। তিনি ২০১৪ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত জলপাইগুড়ি জেলায় বিজেপি কিষান মোর্চার জেলা সভাপতি ছিলেন। তিনিই নেতৃত্ব দিয়েছিলেন রাজগঞ্জ এবং গজলডোবায় জমি আন্দোলনে।

কেন তিনি ছাড়লেন বিজেপি?‌ এই বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে নবেন্দু সরকার সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘‌ইদানিং দলের যা অবস্থা তাতে তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে বিজেপির পার্থক্য করা যাচ্ছিল না। একুশের নির্বাচনের সময় থেকে বাপী গোস্বামীর নেতৃত্বে থাকা বিজেপি দলের অবক্ষয় শুরু হয়েছে। এখানে কাজের বদলে কাছের মানুষকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছিল। এই দলে আর থাকা যাচ্ছিল না।’‌

উল্লেখ্য, পঞ্চায়েত নির্বাচনে যদি আম আদমি পার্টি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে তাহলে বিজেপির ভোট কাটবে তারা। সেক্ষেত্রে সংগঠন শক্তিশালী হবে। তৃণমূল কংগ্রেসের খুব একটা ক্ষতি হবে না। বরং বিজেপি বাংলা থেকে মুছে যাবে। এমনই মনে করা হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে বিজেপি ছেড়ে আম আদমি পার্টিতে যোগ বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। এখানে শুরু হচ্ছে আম আদমি পার্টির সদস্য সংগ্রহের কাজ।

বন্ধ করুন