বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Jalpaiguri: ৬ পড়ুয়া করোনায় আক্রান্ত! বন্ধ করা হল জলপাইগুড়ি গভর্মেন্ট ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ
জল্পাইগুরি গবর্ণমেন্ট ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ।

Jalpaiguri: ৬ পড়ুয়া করোনায় আক্রান্ত! বন্ধ করা হল জলপাইগুড়ি গভর্মেন্ট ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ

  • কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই ওই কলেজের ৪২ জনের বেশি ছাত্রের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তার মধ্যে ৬ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এখনও বাকিদের রিপোর্ট হাতে পায়নি কলেজ কর্তৃপক্ষ। হস্টেলের অন্যান্য আবাসিকদের মধ্যে এনিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

মাঝখানে কয়েক মাস থেমে থাকার পর ইদানীং ফের বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে প্রতিদিনই করোনা ঊর্ধ্বমুখী। গত কয়েকদিনে জলপাইগুড়ি গভর্মেন্ট ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের বেশ কয়েকজন ছাত্র করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। যার জেরে অনির্দিষ্টকালের জন্য কলেজটি বন্ধ করে দেওয়া হল। জানা গিয়েছে, ওই ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের বয়েজ হস্টেলের ৬ জন পড়ুয়া করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তারপর থেকেই তারা চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। ওই বয়েজ হস্টেলে ২০০ জন আবাসিক রয়েছেন। ফলে তাদের মধ্যে করোনা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে কলেজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই ওই কলেজের ৪২ জনের বেশি ছাত্রের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তার মধ্যে ৬ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এখনও বাকিদের রিপোর্ট হাতে পায়নি কলেজ কর্তৃপক্ষ। হস্টেলের অন্যান্য আবাসিকদের মধ্যে এনিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। এই অবস্থা করোনা আক্রান্ত হলে কীভাবে তারা পরীক্ষা দেবে তাই নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। যাদের করোনার উপসর্গ রয়েছে তাদের জন্য আলাদাভাবে পরীক্ষা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে পড়ুয়ারা। কলেজের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে গতকাল রাতে কলেজ কর্তৃপক্ষ বৈঠক করে এবং তারপরেই কলেজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

ইতিমধ্যেই কলেজে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। পাশাপাশি, কলেজ স্যানিটাইজার করা হয়েছে। তবে কলেজের প্রধান বড় বড় বড় বড় করণা আক্রান্ত হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত, বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে করোনা সংক্রমণ যেভাবে বাড়ছে তাতে করোনার চতুর্থ ঢেউ আসতে চলেছে বলে আশঙ্কা করছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা।

বন্ধ করুন