বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌আর একসপ্তাহ অপেক্ষা করব....‌’‌, রাজ্য নেতৃত্বকে হুঁশিয়া‌রি বিজেপি সাংসদের
ঝাড়গ্রামের সাংসদ কুনার হেমব্রম।

‘‌আর একসপ্তাহ অপেক্ষা করব....‌’‌, রাজ্য নেতৃত্বকে হুঁশিয়া‌রি বিজেপি সাংসদের

  • এদিকে এপ্রিল মাসের গোড়ায় নয়াদিল্লিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করেছিলেন কুনার হেমব্রম। তখনই তিনি জেলার সাংগঠনিক পরিস্থিতি নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের হস্তক্ষেপের দাবি জানান।

বিজেপির সাংসদ সৌমিত্র খাঁ, অর্জুন সিং–সহ অনেক শীর্ষ নেতাই রাজ্য নেতৃত্বের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন। এবার বেসুরো বাংলার আরও এক বিজেপি সাংসদ। তিনি ঝাড়গ্রামের সাংসদ কুনার হেমব্রম। এবার এই জেলা সংগঠনের সমস্যা নিয়ে সুর চড়ালেন তিনি। এমনকী কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের বঙ্গ সফরের আগে কার্যত হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপি সাংসদ।

ঠিক কী বলেছেন ঝাড়গ্রামের বিজেপি সাংসদ?‌ এই বিষয়ে কুনার হেমব্রম সাফ বলেন, ‘দলের জেলা সংগঠন নিয়ে সমস্যার কথা নির্দিষ্টভাবে পার্টির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে জানিয়েছি। এখনও পর্যন্ত তার কোনও লিখিত জবাব পাইনি। একসপ্তাহের মধ্যে যদি রাজ্য নেতৃত্ব কোনও পদক্ষেপ না করে তাহলে বিজেপির দিল্লির নেতাদের চিঠি লিখব।’

এদিকে এপ্রিল মাসের গোড়ায় নয়াদিল্লিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করেছিলেন কুনার হেমব্রম। তখনই তিনি জেলার সাংগঠনিক পরিস্থিতি নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের হস্তক্ষেপের দাবি জানান। এই পরিস্থিতিতে ঝাড়গ্রামের বিজেপি সাংসদ সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘এটা ঠিক যে, অমিত শাহজির সঙ্গে আমার মৌখিক কথা হয়েছিল। জেলা তথা রাজ্য নেতৃত্বের সঙ্গে সংগঠনের বিষয়ে কেন্দ্রীয় পার্টি কথা বলেছে কি না, আমার জানা নেই। কিন্তু লিখিতভাবে কোনও নির্দেশিকা দিল্লি থেকে আসেনি।’

কেন হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপি সাংসদ?‌ অন্যদিকে বিজেপি সাংসদ হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘জেলা সংগঠনের পরিস্থিতি যদি শুধরে যায়, তাহলে ঠিকই আছে। কিন্তু যদি না শুধরোয়, তাহলে আর একসপ্তাহ অপেক্ষা করব। তারপর পুরো বিষয়টি লিখিতভাবে দলের শীর্ষ কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে জানাব। ঝাড়গ্রাম জেলার সংগঠন যে ডামাডোলের মধ্যে রয়েছে, তার প্রেক্ষিতে দলীয় নেতৃত্ব কী পদক্ষেপ নেয়, সেটাই এখন দেখার।’ এই জেলায় মণ্ডল কমিটি তৈরি না হওয়া নিয়ে প্রবল ক্ষোভ রয়েছে বিজেপির অন্দরে।

বন্ধ করুন