কুনার হেমব্রম। ফাইল ছবি
কুনার হেমব্রম। ফাইল ছবি

সুপারিশ পত্রে BJP সাংসদের সই, ত্রাণ না নিয়েই বাড়ি ফিরতে হল ২২ জন আদিবাসীকে

  • কুনার হেমব্রমের দাবি, ‘কী বলব বলুন? খুব খারাপ লাগছে। মানুষের সঙ্কটে প্রশাসন রাজনীতি করছে।

সুপারিশপত্রে BJP সাংসদের সই, ২২টি আদিবাসী পরিবারকে ত্রাণ না দিয়ে ফিরিয়ে দিলেন BDO। অভিযোগ, ঝাড়গ্রামের বিডিওর বিরুদ্ধে। বিষয়টিকে ‘ভুল বোঝাবুঝি’ বলে দাবি করেছেন জেলাশাসক আয়েশা রানি।

ঝাড়গ্রামের বিজেপি সাংসদ কুনার হেমব্রমের দাবি, তাঁর নিজের পাড়ার ২২টি আদিবাসী পরিবার তাঁর কাছ থেকে ত্রাণের সুপারিশপত্র সংগ্রহ করে। মঙ্গলবার সেই সুপারিশপত্র নিয়ে বিডিওর কাছে গেলে তিনি ত্রাণ না দিয়ে পরিবারগুলিকে ফিরিয়ে দেন বলে অভিযোগ।

কুনার হেমব্রমের দাবি, ‘কী বলব বলুন? খুব খারাপ লাগছে। মানুষের সঙ্কটে প্রশাসন রাজনীতি করছে। মুখ্যমন্ত্রী আদিবাসীদের জন্য দরদ দেখান। তাঁর প্রশাসনই রাজনীতির রং দেখে আদিবাসীদের ত্রাণ দিচ্ছে।’

বলে রাখি, ঝাড়গ্রামের রাধানগর পঞ্চায়েতের কন্যাডোবা গ্রামের এক সাধারণ বাড়ির ছেলে সেখানকার সাংসদ কুনার হেমব্রম। ঘটনার কথা জেনে তিনি ঝাড়গ্রামের জেলাশাসক আয়েশা রানিকে ফোন করেন। জেলা শাসক জানিয়েছেন, ‘কোনাও ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। বুধবার বিডিও অফিসে গেলে ত্রাণ মিলবে।’ ওদিকে বুধবার ত্রাণ না মিললে জেলা শাসককের দফতরের সামনে ধরনায় বসার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন কুনারবাবু।

বন্ধ করুন