বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'গ্রেট ক্যালকাটা কিলিং' শুরুর দিনে 'খেলা হবে' দিবস, হিংসার প্রতীকের স্লোগান: BJP
স্বপন দাশগুপ্ত  (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
স্বপন দাশগুপ্ত  (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

'গ্রেট ক্যালকাটা কিলিং' শুরুর দিনে 'খেলা হবে' দিবস, হিংসার প্রতীকের স্লোগান: BJP

১৬ অগস্টকে খেলা হবে দিবস করার পিছনে বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে বলেই মনে করছে তৃণমূল নেতৃত্বের একাংশ।

‌তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের খেলা হবে দিবস ঘোষণার মধ্যে হিংসায় উস্কানি রয়েছে বলে মনে করছে বিজেপি। ১৬ আগস্ট দিনটিকে ‘‌খেলা হবে দিবস’‌ হিসাবে ঘোষণা করেছেন তৃণমূল নেত্রী। এই দিনটিই ‘‌দ্য গ্রেট ক্যালকাটা কিলিং’‌ নামে পরিচিত আছে। একইদিনে খেলা হবে স্লোগান ঘোষণা করায় এবার তৃণমূল নেত্রীকে কাঠগড়ায় তুললেন বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত।

এদিন শহিদ স্মরণে বক্তৃতার সময়ে খেলা হবে দিবসের প্রসঙ্গ টেনে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছিলেন, খেলা একটা হয়েছে। আবার খেলা হবে। বিজেপিকে যতদিন বিদায় দিতে না পারছি, রাজ্যে রাজ্যে খেলা হবে। সব জায়গায় খেলা হবে। ১৬ জুলাই খেলা হবে দিবস পালিত হবে। তৃণমূল নেত্রীর এই ঘোষণার পরই টুইটে বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ জানান, ‘‌১৬ অগস্টকে খেলা হবে দিবস হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। ১৯৪৬ সালে এই দিনটিতেই মুসলিম লিগের মদতে গ্রেট ক্যালকাটা কিলিং শুরু করেছিল। আজকের পশ্চিমবঙ্গে খেলা হবে স্লোগানটি আসলে প্রতিপক্ষের উপর হিংসার প্রতীক হিসাবে পরিণত হয়েছে।’‌

উল্লেখ্য, ১৬ আগস্টকে খেলা হবে দিবস করার পিছনে বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে বলেই মনে করছে তৃণমূল নেতৃত্বের একাংশ। এই দিনটিকে জাতীয় ফুটবল প্রেমী দিবস হিসাবে পালন করা হয়। ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যাবে, এই দিনটিতে ইস্টবেঙ্গল ও মোহনবাগানের ডার্বিতে ১৬ জন ফুটবলপ্রেমীর মৃত্যু হয়েছিল। এরপর এই দিনটিকে ফুটবল প্রেমী দিবস হিসাবে পালন করা হয়। গত বিধানসভা ভোটে তৃণমূল নেত্রী যত জনসভা করেছেন, সব সভাতেই খেলা হবে স্লোগানটি ব্যবহার করেছেন। খেলা হবে স্লোগানের মধ্যে দিয়ে সভায় উপস্থিত একজন যুবকের হাতে ফুটবলও তুলে দিতেন তিনি। ফলে খেলা হবে এই স্লোগানের সঙ্গে ফুটবল সম্পর্কযুক্ত বলেই মনে করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন