বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সাপে কাটা ছেলেকে ওঝার কাছে নিয়ে গেলেন বাবা - মা, কয়েক ঘণ্টায় মৃত্যু

সাপে কাটা ছেলেকে ওঝার কাছে নিয়ে গেলেন বাবা - মা, কয়েক ঘণ্টায় মৃত্যু

নিহত সঞ্জয় হাঁসদা

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার সকালে সঞ্জয় হাঁসদা নামে ওই শিশুকে কালাচ সাপে কামড়ায়। কিছুক্ষণের মধ্যে অসুস্থতা বোধ করে শিশুটি। যদিও ছোট ছেলটিকে যে সাপে কামড়েছে তা তখনও বুঝতে পারেনি কেউ।

সাপে কাটা ছেলেকে চিকিৎসকের কাছে না নিয়ে গিয়ে চরম মূল্য দিতে হল বাবা-মাকে। মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল ৪ বছরের শিশু। বৃহস্পতিবার বাঁকুড়ার ইন্দাসের বুনকি গ্রামে নামল শোক।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার সকালে সঞ্জয় হাঁসদা নামে ওই শিশুকে কালাচ সাপে কামড়ায়। কিছুক্ষণের মধ্যে অসুস্থতা বোধ করে শিশুটি। যদিও ছোট ছেলটিকে যে সাপে কামড়েছে তা তখনও বুঝতে পারেনি কেউ। ছেলেকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়ার বদলে পাশে বরঘোষ গ্রামের এক মহিলা ওঝার কাছে নিয়ে যান পরিবারের সদস্যরা।

ওঝা শিশুটির কপালে একটি সিঁদুরের তিলক কেটে বলেন, ওর সুস্থতা কামনায় পরে ঝাড়ফুঁক করা হবে। তখনকার মতো ছেলেকে বাড়িতে নিয়ে যান বাবা - মা। বাড়ি ফেরার কিছুক্ষণ পর ফের অসুস্থ হয়ে পড়ে সঞ্জয়। তখন তারে ইন্দাস ব্লক হাসপাতালে নিয়ে যান পরিজনরা। সেখান থেকে বর্ধমান মেডিক্যালে স্থানান্তরিত করা হয় তাঁকে। সেখানে নিয়ে যাওয়ার পথে শিশুটির মৃত্যু হয়।

চিকিৎসকরা জানান, সাপে কামড়েছিল শিশুটিকে। দ্রুত চিকিৎসা শুরু করা গেলে তাঁকে বাঁচানো যেত।

 

বন্ধ করুন