বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > উঠল স্বাধীন রাষ্ট্রের দাবি, সেনা-পুলিশের বিরুদ্ধে হাতিয়ার তোলার ঘোষণা KLO-র
কেএলও বিচ্ছিন্নতাবাদী (ফাইল ছবি)
কেএলও বিচ্ছিন্নতাবাদী (ফাইল ছবি)

উঠল স্বাধীন রাষ্ট্রের দাবি, সেনা-পুলিশের বিরুদ্ধে হাতিয়ার তোলার ঘোষণা KLO-র

  • ভারতীয় নিরাপত্তাবাহিনীর বিরুদ্ধে সরাসরি সশস্ত্র বিপ্লবের ঘোষণা করল কামতাপুর লিবারেশন অর্গানাইজেশন বা কেএলও।

ভারতীয় নিরাপত্তাবাহিনীর বিরুদ্ধে সরাসরি সশস্ত্র বিপ্লবের ঘোষণা করল কামতাপুর লিবারেশন অর্গানাইজেশন বা কেএলও। এর আগে পৃথক রাজ্যের দাবি করত বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন। তবে এবার সরাসরি স্বাধীন রাষ্ট্রের দাবি করল জীবন সিংয়ের নেতৃত্বাধীন কেএলও। 'সোনার কামতাপুর' নামক একটি পোর্টালে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে কেএলও-র তরফ থেকে ভারতীয় সেনাবাহিনী, সিআইএসএফ, অসম রাইফেলস এবং পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের বিরুদ্ধে সশস্ত্র বিপ্লব ঘোষণা করা হয়।

গোপন ডেরা থেকে এই হুমকি ভিডিয়ো রেকর্ড করে পাঠিয়েছেন পাভেল। সম্প্রতি পোস্ট করা সেই ভিডিয়োতে কেএলও-র যুগ্ম সম্পাদক পাভেল কোচকে হুমকি দিতে দেখা গিয়েছে। সেই ভিডিয়ো ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে যদিও কোনও সরকারি বিবৃতি প্রকাশ হয়নি।

পাভেলের বক্তব্য, তাঁদের আন্দোলনে বাধা সৃষ্টি করছে ভারতীয় সেনাবাহিনী, সিআইএসএফ, অসম রাইফেলস এবং পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ। কেএলও বিচ্ছিনতাবাদীদের দাবি, পৃথক রাষ্ট্র। উত্তরবঙ্গের সাতটি জেলা, অসমের ১৪টি জেলা, পশ্চিম গারো পাহাড়ের মেঘালয়, নেপালের তিনটি রাজ্য, বিহারের দু’টি জেলা এবং বাংলাদেশের রংপুর, দিনাজপুর ও পঞ্চগড় জেলা নিয়ে পৃথক কামতাপুর রাষ্ট্র গড়ে তোলার দাবি জানিয়েছে কেএলও।

তবে এই মুহূর্তে কেএলও জঙ্গিরা খুব বেশি সক্রিয় ছিল না। তবে নতুন করে তাদের ভিডিয়ো বার্তা চিন্তা বাড়াচ্ছে প্রশাসনের। পাভেলের দাবি, ১৯৪৬ সালের আগে এই এলাকাগুলিতে বসবাসকারী বোরো, কোচ, রাজবংশী, মেচ, হিন্দু, মুসলমান সকলেই কামতাপুর রাষ্ট্রের নাগরিক ছিলেন। কিন্তু এখন আর তাঁদের সেই পরিচয় নেই। এঁদের নিয়েই নতুন করে কামতাপুর রাষ্ট্র গড়ে তুলতে চায় কেএলও। আর এই হুমকির পরই পশ্চিমবঙ্গ ও অসমের প্রশাসনিক মহলে তত্পরতা দেখা গিয়েছে বিচ্ছিনতাবাদীদের দমন করতে।

বন্ধ করুন