বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'ভোটের ফলপ্রকাশের দিনই কৃষ্ণ কল্যাণী দলবদলের মনোস্থির করে ফেলেছিলেন'
দেবশ্রী চৌধুরী। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)
দেবশ্রী চৌধুরী। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)

'ভোটের ফলপ্রকাশের দিনই কৃষ্ণ কল্যাণী দলবদলের মনোস্থির করে ফেলেছিলেন'

  • দেবশ্রী বলেন, ‘উনি বিভিন্ন জায়গায় আমাকে দায়ী করে বেড়াচ্ছেন। কিন্তু এতে লাভ হবে না। আমার শুধু একটাই দোষ। সংগঠনটা ওর হাতে তুলে দিতে পারিনি।’

রাজ্যে যে দিন তৃণমূল জিতেছে সেই দিনই কৃষ্ণ কল্যাণী পুরনো দলে ফিরবেন বলে জানিয়ে দিয়েছিলেন। এমনই চাঞ্চল্যকর দাবি করলেন রায়গঞ্জের বিজেপি সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘আমাকে অহেতুক দোষারোপ করে লাভ হবে না।’

দীর্ঘ জল্পনার শেষে শুক্রবার বিজেপি ত্যাগ করেছেন রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী। তবে এখনো কোনও দলে যোগ দেননি তিনি। কৃষ্ণ কল্যাণীর দলত্যাগ নিয়ে এদিন কড়া প্রতিক্রিয়া দেন রায়গঞ্জের সাংসদ দেবশ্রী চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘রাজ্যে যেদিন তৃণমূলের সরকার গঠন হয়েছিল সেদিনই ও পুরনো দলে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। বিজেপি ক্ষমতায় আসছে ভেবে উনি এখানে এসেছিলেন। টিকিট পেয়ে ভোটে জিতেছিলেন।’

দেবশ্রী বলেন, ‘উনি বিভিন্ন জায়গায় আমাকে দায়ী করে বেড়াচ্ছেন। কিন্তু এতে লাভ হবে না। আমার শুধু একটাই দোষ। সংগঠনটা ওর হাতে তুলে দিতে পারিনি।’ সাংসদের দাবি, ‘উনি জেলা সভাপতি এমনকী রাজ্য সভাপতির বিরুদ্ধেও দোষারোপ করছেন। কেন ওনার সঙ্গে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বর যোগাযোগ করে সংগঠনের ব্যাপারে পরামর্শ চাইল না। আশা করবো উনি যেখানে যাচ্ছেন সেখানকার নেতৃত্ব ওনার সঙ্গে পরামর্শ করে কাজ করবেন।’

দেবশ্রী বলেন, ‘উনি দলে আসার আগেই আমরা এই জেলায় ভালো করেছিলাম। ফলে উনি আসায় বাড়তি কোনও লাভ হয়েছে বলা যাবে না। তাই চলে গিয়েও কোনও ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা নেই। ওনার সংগঠনে তেমন কোনও ভিত ছিল না।’ তবে তাঁর বিরুদ্ধে দলত্যাগবিরোধী আইনে অভিযোগ করা হবে কি না তা বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী ঠিক করবেন বলে জানান তিনি। 

বন্ধ করুন