বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বন্ধ জুটমিল খুলতে চলেছে, শ্রমিকরা পাচ্ছেন পুরো বোনাস, মন্ত্রীর চেষ্টায় খুশি সবাই
বেচারাম মান্না। ফাইল ছবি
বেচারাম মান্না। ফাইল ছবি

বন্ধ জুটমিল খুলতে চলেছে, শ্রমিকরা পাচ্ছেন পুরো বোনাস, মন্ত্রীর চেষ্টায় খুশি সবাই

  • আগামী ১৮ অক্টোবর উৎপাদন শুরু হবে এই জুট মিলে। তাই কাজ হারানো আড়াই হাজার শ্রমিকের মুখে এখন হাসি ফুটেছে।

এবার দুর্গাপুজো ওদের খুব একটা ভাল যাবে না। কিন্তু দুর্গাপুজোর মুখে এসেছে সুখবর। যার ফল মিলবে পুজোর পর। হ্যাঁ, রিষড়ার ওয়েলিংটন জুট মিলের শ্রমিকদের কথাই এখানে উঠে এসেছে। কারণ প্রায় সাত মাস ধরে বন্ধ ছিল এই জুটমিল। রুজি–রোজগার না থাকায় দুর্গাপুজো ওঁদের কাছে সুখের হয়ে ওঠেনি। কিন্তু আগামী ১৮ অক্টোবর উৎপাদন শুরু হবে এই জুট মিলে। তাই কাজ হারানো আড়াই হাজার শ্রমিকের মুখে এখন হাসি ফুটেছে।

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি ওয়েলিংটন জুট মিলে ঝুলেছিল ‘সাসপেনশন অব ওয়ার্ক’ নোটিশ। তার পর থেকেই এই শ্রমিকদের জীবনে নেমে আসে অন্ধকার। বারবার আলোচনাতে বসলেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে ওঠেনি। জুট মিল খোলার দাবিতে আন্দোলনও করেছিলেন শ্রমিকরা। কিন্তু রোজগার হারিয়ে দিশাহীন হয়ে পড়েছিলেন তাঁরা। অবশেষে আশার আলো দেখা গিয়েছে।

প্রতিটি জুট মিল খোলার জন্য রাজ্যের শ্রমমন্ত্রী বেচারাম মান্না উদ্যোগ নেবেন বলে আগেই জানিয়েছিলেন। এই জুটমিল খুলবে বলেও তিনি আশ্বাস দিয়েছিলেন। অবশেষে তা খুলতে চলেছে ১৮ অক্টোবর। এই খবর চাউর হতেই খুশির জোয়ার আসে শ্রমিকদের মধ্যে। শুক্রবার কারখানা কর্তৃপক্ষ এবং শ্রমিকদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন শ্রমমন্ত্রী।

তারপরই সিদ্ধান্ত নিয়ে তিনি জানিয়ে দেন শনিবার থেকে ওয়েলিংটন জুট মিলের দরজা খুলে দেওয়া হবে। এই বিষয়ে বেচারাম মান্না বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ ছিল ওয়েলিংটন জুট মিল। শ্রমিক-মালিক প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। মিল কর্তৃপক্ষ আমাদের কথা শুনেছেন, সে জন্য আমি খুশি। পুজোর আগেই শ্রমিকদের পুরো বোনাস দিয়ে দেওয়া হবে। ১৮ তারিখ থেকে কারখানায় উৎপাদন শুরু হবে।’

বন্ধ করুন