বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ছাদে উঠে তরুণীর শ্লীলতাহানি তৃণমূল নেতার, বাঁচাতে গিয়ে খুন তরুণীর মা
ফাইল ছবি (ফাইল ছবি)
ফাইল ছবি (ফাইল ছবি)

ছাদে উঠে তরুণীর শ্লীলতাহানি তৃণমূল নেতার, বাঁচাতে গিয়ে খুন তরুণীর মা

  • আক্রান্ত কলেজছাত্রীর দাবি, মঙ্গলবার রাতে ছাদে বসে ফোনে বন্ধুর সঙ্গে কথা বলছিলেন তিনি। তখনই ছাদে উঠে পড়ে স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্যের স্বামী কুশ বেরা। তাঁকে পিছন থেকে জাপটে ধরে সে। সঙ্গে সঙ্গে চিৎকার করে ওঠেন তরুণী।

কলেজছাত্রীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা তৃণমূল নেতার। বাধা দিতে গেলে ধাক্কা দিয়ে ফেলে খুন ছাত্রীর মাকে। এই ঘটনায় বুধবার উত্তাল হয়ে উঠল হাওড়ার বাগনান। অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা কুশ বেরা পলাতক। তাঁর গ্রেফতারির দাবিতে বুধবার বাগনান থানার সামনে তুমুল বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি অবরোধ করা হয় ৬০ নম্বর জাতীয়সড়ক। 

আক্রান্ত কলেজছাত্রীর দাবি, মঙ্গলবার রাতে ছাদে বসে ফোনে বন্ধুর সঙ্গে কথা বলছিলেন তিনি। তখনই ছাদে উঠে পড়ে স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্যের স্বামী কুশ বেরা। তাঁকে পিছন থেকে জাপটে ধরে সে। সঙ্গে সঙ্গে চিৎকার করে ওঠেন তরুণী। মেয়ের চিৎকার শুনে সিঁড়ি দিয়ে ছাদে আসেন মা। তখন তাঁকে ধাক্কা দেয় কুশ বেরা। সিঁড়ি থেকে পড়ে যান তিনি। 

এতে মাথায় গুরুতর চোট পান ওই মহিলা। তাঁকে প্রথমে বাগনান গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে নিয়ে যাওয়া হয় উলুবেড়িয়া মহকুমা হাসপাতালে। সেখানে মৃত্যু হয় মহিলার। 

এর পর সকাল থেকে অভিযুক্তের গ্রেফতারির দাবিতে বাগনান থানার সামনে ভিড় জমাতে থাকে জনতা। হাজির হন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় ও সৌমিত্র খাঁ। এর পর থানার সামনে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে বিজেপি। সৌমিত্র খাঁর নেতৃত্বে বাগনানের খাদিনা মোড়ে ৬০ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিজেপি যুব মোর্চা।

বাগনান থানা সূত্রে জানা গিয়েছে, দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। কুশ বেরার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এছাড়া একটি খুনের মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। অভিযুক্তের খোঁজ চলছে। 

 

বন্ধ করুন