বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বিনা ডিগ্রিতে আইন স্কুলের ডিন! নিয়মবহির্ভূত নিয়োগ IIT খড়গপুরের প্রতিষ্ঠানের
খড়গপুর আইআইটি (‌ছবি সৌজন্য টুইটার)‌
খড়গপুর আইআইটি (‌ছবি সৌজন্য টুইটার)‌

বিনা ডিগ্রিতে আইন স্কুলের ডিন! নিয়মবহির্ভূত নিয়োগ IIT খড়গপুরের প্রতিষ্ঠানের

  • আইআইটি খড়গপুরের অধীনে থাকা আইন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘রাজীব গান্ধী স্কুল অফ ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি ল’-এর ডিনকে নিয়ে বিতর্ক চরমে।

আইআইটি খড়গপুরের অধীনে থাকা আইন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘রাজীব গান্ধী স্কুল অফ ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি ল’-এর ডিনকে নিয়ে বিতর্ক চরমে। জানা গিয়েছে এই পদে থাকা প্রফেসর আইআইটি-র ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক। তাঁ কোনও আইনের ডিগ্রি নেই। আইন স্কুলের ডিন কীভাবে একজন ইঞ্জিনিয়ার, তা নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। এদিকে অভিযোগের বিষয়ে আইআইটি কর্তৃপক্ষের কোনও ভ্রূক্ষেপ নেই বলে অভিযোগ।

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউশনাল র‌্যাঙ্কিং ফ্রেমওয়ার্কের রিপোর্ট অনুযায়ী, দেশের আইন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির মধ্যে চতুর্থ স্থানে রয়েছে আইআইটি খড়গপুরের অধীনে থাকা ‘রাজীব গান্ধী স্কুল অফ ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি ল’। তবে এহেন গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের ডিন কীভাবে একজন ইঞ্জিনিয়ার, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে শিক্ষআ সিবিরের একাংশের দাবি, এই নিয়োগে বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া এবং ইউজিসি-র বিধিভঙ্গ হচ্ছে।

জানা গিয়েছে গতবছর জুন মাসে ‘রাজীব গান্ধী স্কুল অফ ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি ল’-এর ডিন পদে নিয়োগ করা হয় আইআইটি-র ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষককে। এরপর এই বিষয়ে আপত্তি জানিয়ে বার কাউন্সিলের তরফে চিঠি পাঠানো হয়েছিল আইআইটি খড়গপুর কর্তৃপক্ষের কাছে। তবে তাতেও কোনও ভ্রূক্ষেপ নেই কর্তৃপক্ষের। অভিযোগের একবছর দুই মাস পরও সেই শিক্ষককেই ডিন পদে বহাল রাখা হয়েছে।

এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে আইআইটি খ়ডগপুরের রেজিস্ট্রার তমাল নাথ সংবাদমাধ্যমের কাছে দাবি করেন, 'আইন স্কুলের বর্তমান ডিন এর আগে সেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টি রাইটস সেলের প্রধান ছিলেন। তার পরে তাঁকে ডিনের দায়িত্ব দেওয়া হয়। ডিনের পদটি প্রশাসনিক। উনি তো আইনের পড়ুয়াদের পড়াচ্ছেন না। আইআইটির যিনি অধিকর্তা, তিনি এই স্কুলেরও অধিকর্তা। তাঁরও তো আইনের ডিগ্রি নেই।'

 

বন্ধ করুন