বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > গাড়িকে ৫০০ মিটার টেনে নিয়ে গেল ট্রেন, বসাতে হবে রেলগেট, বিক্ষোভ স্থানীয়দের
গাড়িকে ৫০০ মিটার দূরে টেনে নিয়ে গেল ট্রেন, বসাতে হবে রেলগেট, দাবি স্থানীয়দের। ছবি হিন্দুস্তান টাইমস।
গাড়িকে ৫০০ মিটার দূরে টেনে নিয়ে গেল ট্রেন, বসাতে হবে রেলগেট, দাবি স্থানীয়দের। ছবি হিন্দুস্তান টাইমস।

গাড়িকে ৫০০ মিটার টেনে নিয়ে গেল ট্রেন, বসাতে হবে রেলগেট, বিক্ষোভ স্থানীয়দের

  • মেচেদাগামী একটি লোকাল ট্রেন ওই গাড়িটিকে সজোরে ধাক্কা মারে।

রেললাইন পারাপার করার জন্য ঠিকমতো রাস্তা নেই। রেলগেটও নেই। ফলে প্রহরীবিহীন লেভেল ক্রসিং দিয়ে রাস্তা পার হতে হয় স্থানীয়দের। আর সেই লেভেল ক্রসিং পার করতে গিয়ে বেকায়দায় পড়ে রেললাইনে আটকে গেল একটি গাড়ি। ঠিক সেই সময়ই চলে আসে একটি ট্রেন। মেচেদাগামী একটি লোকাল ট্রেন ওই গাড়িটিকে সজোরে ধাক্কা মারে। গাড়িটিকে টানতে টানতে ৫০০ মিটার দূরে গিয়ে থামে ট্রেনটি। ঘটনাটি ঘটেছে তমলুক থানার নারায়ণ পুর এলাকায়। যদিও অবস্থা বেগতিক বুঝে গাড়ি থেকে ঝাঁপ দিয়ে প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন গাড়ির চালক।

রবিবার এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা। রেলগেট বসানোর দাবিতে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় রেল পুলিশ এবং তমলুক থানার পুলিশ। তারপরেও নিজেদের দাবিতে অনড় থাকেন এলাকাবাসীরা।

স্থানীয় বাসিন্দা লক্ষ্মীকান্ত জানা জানিয়েছেন, 'ওই রেললাইন হয়ে প্রতিদিন কয়েক হাজার লোক যাতায়াত করার। ২৫ থেকে ৩০ টি গ্রামের প্রায় ২০ হাজার লোক রেললাইন পার হয়ে যাতায়াত করে। কিন্তু তারপরেও সেখানে রাস্তা করার জন্য উদ্যোগ নিচ্ছে না রেল। সেখানে গেটও করা হচ্ছে না।' তাঁর অভিযোগ, স্থানীয় মানুষরা সেখানে রাস্তা করলেও রেলের তরফ থেকে সেই রাস্তা ভেঙে দেওয়া হয়। মানুষের অসুবিধার কথা এর আগে বহুবার রেলকে জানানো হয়েছে। তারপরেও কোনও রকমের ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে তার অভিযোগ।

এদিনের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় মানুষ ঘটনাস্থলে জমায়েত করেন। রেললাইন অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। তাঁদের দাবি সেখানে রেলগেট এবং রাস্তা না হওয়া পর্যন্ত তারা এই অবরোধ তুলবেন না।

বন্ধ করুন