বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > লাইনে দাঁড়িয়ে থাকাই সার, খিড়কি দিয়ে লোক ঢুকিয়ে টিকা দেওয়ার অভিযোগ ইসলামপুরে
টিকা না পেয়ে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন স্থানীয়রা। 
টিকা না পেয়ে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন স্থানীয়রা। 

লাইনে দাঁড়িয়ে থাকাই সার, খিড়কি দিয়ে লোক ঢুকিয়ে টিকা দেওয়ার অভিযোগ ইসলামপুরে

  • ভ্যাকসিনের জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা শাহনাজ শেখ, রাজু দাস, জয় মোদকরা অভিযোগ করেন, কেউ রাত বারোটা থেকে কেউবা আবার ভোর তিনটে থেকে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন।

দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়েও ভ্যাকসিন পাচ্ছেন না সাধারন মানুষ। অভিযোগ, স্বাস্থ্যকর্মীরা বাইরের লোক ঢুকিয়ে ভ্যাকসিন দিচ্ছেন। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ালো উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুর সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে। লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা সাধারন মানুষের সাথে পুলিশের বচসা ও ধস্তাধস্তির ঘটনাও ঘটে। ইসলামপুর থানার পুলিশবাহিনী পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সোমবার কোভিড ভ্যাকসিনের প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ দেওয়ার জন্য ভোর থেকে ইসলামপুর সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালে লাইনে দাঁড়িয়ে পড়েন সাধারণ মানুষ। কথা ছিল এদিন ১২০ জনকে ভ্যাকসিন প্রদান করা হবে। অভিযোগ, হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীরা বাইরের লোকেদের অবৈধভাবে লাইনে ঢুকিয়ে দিচ্ছেন। এর ফলে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা সাধারণ মানুষ টিকা না পেয়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। অপেক্ষমান জনতার সঙ্গে স্বাস্থ্যকর্মীদের বচসা বেঁধে যায়। দায়িত্বে থাকা স্থানীয় পুলিশ কর্মীদের সাথেও বচসা ও ধস্তাধস্তি শুরু হয় হয় সাধারণ মানুষের। 

ভ্যাকসিনের জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা শাহনাজ শেখ, রাজু দাস, জয় মোদকরা অভিযোগ করেন, কেউ রাত বারোটা থেকে কেউবা আবার ভোর তিনটে থেকে ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। অথচ হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীরা অবৈধভাবে বাইরের লোকজনকে লাইনে ঢুকিয়ে দিয়েছেন। ফলে আমরা ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেও ভ্যাকসিন নিতে পারলাম না। 

লাইনে অপেক্ষায় থাকা ব্যক্তিদের আর টিকা দেওয়া হবে না বলে জানাতেই উত্তেজনা ছড়ায়। বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তাঁরা। ইসলামপুর থানার পুলিশবাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এই ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

 

বন্ধ করুন