বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ক্ষমা চেয়েও ছাড় নেই, ত্রাণ দুর্নীতিতে তৃণমূলের পঞ্চায়েতের সামনে বিক্ষোভ জনতার
বাঁ দিকে, কান ধরে ক্ষমা চাইছেন স্বপন ঘাঁটি
বাঁ দিকে, কান ধরে ক্ষমা চাইছেন স্বপন ঘাঁটি

ক্ষমা চেয়েও ছাড় নেই, ত্রাণ দুর্নীতিতে তৃণমূলের পঞ্চায়েতের সামনে বিক্ষোভ জনতার

  • এর প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার তৃণমূল পরিচালিত পঞ্চায়েতটির দফতরের সামনে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখান কয়েক শ গ্রামবাসী। তাদের দাবি, অবিলম্বে পুরনো তালিকা বাতিল করে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের দিয়ে নতুন তালিকা বানাতে হবে।

দক্ষিণ ২৪ পরগনার মথুরাপুরের নগেন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের সামনে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখাল জনতা। বুধবার লাঠিসোটা নিয়ে আমফানের ত্রাণে দুর্নীতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় মানুষ। হাজির ছিলেন স্থানীয় বিজেপি নেতারাও। অবিলম্বে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা প্রকাশ্যে আনার দাবি তুলেছেন তাঁরা। 

বলে রাখি, মঙ্গলবার নগেন্দ্রপুরের তৃণমূলি পঞ্চায়েত সদস্য স্বপন ঘাঁটি কান ধরে বিডিওর সামনে আমফানের ত্রাণে দুর্নীতির কথা স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছিলেন। বুধবার রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় তাঁকে আটক করেন গ্রামবাসীরা। তাঁর মোটরসাইকেলে ভাঙচুর চালানো হয়। এর পর তাঁকে একটি স্কুলের মাঠে আটকে রেখেছিলেন স্থানীয়রা। খবর পেয়ে সেখানে যান মথুরাপুর ২ নম্বর ব্লকের বিডিও ও রায়দিঘি থানার আধিকারিকরা। তাঁদের সামনেই কান ধরে নিজের কীর্তির কথা স্বীকার করেন স্বপনবাবু। 

এর প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার তৃণমূল পরিচালিত পঞ্চায়েতটির দফতরের সামনে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখান কয়েক শ গ্রামবাসী। তাদের দাবি, অবিলম্বে পুরনো তালিকা বাতিল করে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের দিয়ে নতুন তালিকা বানাতে হবে। 

তৃণমূলের তরফে পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ‘ঘটনার কথা জানার পর স্বপন ঘাঁটি নামে ওই পঞ্চায়েত সদস্যকে বহিষ্কার করেছে তৃণমূল। তাঁর বিরুদ্ধে আইনানুগ পদক্ষেপ হবে। তাই বলে তো গলা কেটে নিতে পারি না?’

 

বন্ধ করুন