বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > লকডাউনেও চলছে রেশন পাচার, হাতেনাতে ধরলেন গ্রামবাসীরা
অভিযুক্ত রেশন ডিলারের দোকানে রাখা সামগ্রী। 
অভিযুক্ত রেশন ডিলারের দোকানে রাখা সামগ্রী। 

লকডাউনেও চলছে রেশন পাচার, হাতেনাতে ধরলেন গ্রামবাসীরা

  • এক গ্রামবাসী বলেন, ‘সন্দেহের বশে এলাকার মৃত ব্যক্তিদের রেশন কার্ডগুলি পরীক্ষা করে দেখা যায় সেগুলি থেকে তখনও রেশন তোলা হচ্ছে’।

মৃত ব্যক্তির নামে রেশন সামগ্রী আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠল রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে। পূর্ব বর্ধমানের মঙ্গলকোটের ধারসোনা এলাকার রেশন ডিলারের বিরুদ্ধে এই অভিযোগে মঙ্গলবার বিক্ষোভ দেখান গ্রামবাসীরা। 

ঘটনার সূত্রপাত ১১ মে মঙ্গলবার গভীর রাতে। প্রায় ২২ বস্তা আটা, চাল ও গম পাচারের সময় হাতেনাতে ধরে ফেলে ধারসোনা গ্রামের বাসিন্দারা। সেই থেকে গ্রামবাসীদের সন্দেহের তালিকায় ধারসোনা ২৪৫ নম্বর রেশন ডিলার। 

এক গ্রামবাসী বলেন, ‘সন্দেহের বশে এলাকার মৃত ব্যক্তিদের রেশন কার্ডগুলি পরীক্ষা করে দেখা যায় সেগুলি থেকে তখনও রেশন তোলা হচ্ছে’। তার পর কাহিনী বুঝতে আর সমস্যা হয়নি কারও।

গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, এলাকায় কারও মৃত্যু হলে তাঁর রেশন কার্ড ডিলারের কাছে জমা দিয়ে আসেন তাঁরা। গত বেশ কয়েক বছর ধরে এমন সব রেশন কার্ড দফতরে জমা দেননি ডিলার। বরং সেই কার্ডগুলি ব্যবহার করে রেশন পাচার করতেন তিনি। যদিও রেশন ডিলার চাঁদ শেখ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাঁর দাবি, কার্ড ডিঅ্যাক্টিভেট করার জন্য দফতরকে জানিয়েছি। দফতর তার কাজ না করলে দায় আমার নয়।

 

বন্ধ করুন