বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'পার্টি লাইন' ভাঙছেন স্বয়ং দিলীপ? লকেট-রাহুলের উল্টো সুরে প্রকাশ্যে ‘বিরোধ’
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি। (Ajay Aggarwal /HT PHOTO)
বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি। (Ajay Aggarwal /HT PHOTO)

'পার্টি লাইন' ভাঙছেন স্বয়ং দিলীপ? লকেট-রাহুলের উল্টো সুরে প্রকাশ্যে ‘বিরোধ’

  • উত্তরবঙ্গ ও জঙ্গলমহলকে আলাদা রাজ্য করার দাবিতে কোনও ভুল দেখেননি বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

উত্তরবঙ্গ ও জঙ্গলমহলকে আলাদা রাজ্য করার দাবিতে কোনও ভুল দেখেননি বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তবে সেই একই ইস্যুতে উল্টো সুর শোনা গেল বিজেপির অন্য নেতাদের গলায়। দলের প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি রাহুল সিনহা এই বিষয়ে জানান যে যে পৃথক রাজ্যের নীতি বা বঙ্গ ভঙ্গের নীতি বিজেপি কোনও স্তরেই গ্রহণ করেনি। এবং বাংলা অটুট রাখার পক্ষেই বিজেপি। এদিকে দিলীপের উল্টো সুর শোনা গেল হুগলির সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়ের গলাতেও।

উল্লেখ্য, এর আগে দিলীপ ঘোষও বলেছিলেন যে পৃথক রাজ্যেরনীতি বিজেপির দলগত নয়, যে বলছেন তা ব্যক্তিগত স্তরে বলছেন। তবে একদিন আগেই উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়ে আলিপুরদুয়ারের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জন বার্লাকে পাশে বসিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, 'উত্তরবঙ্গ, জঙ্গলমহল যদি আলাদা হতে চায় তার সমস্ত দায়দায়িত্ব মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিতে হবে।' এই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে প্রশ্ন করা হলে লকেট চট্টোপাধ্যায় দিলীপ ঘোষের বিরোধিতা করেন। জানান, বাংলা ভাগ কখনই হবে না।

এর আগে উত্তরবঙ্গ ও জঙ্গলমহলকে আলাদা রাজ্য হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার দাবিকে সাধারণ মানুষের দাবি হিসেবে ব্যাখ্যা করেছেন দিলীপ। দিলীপের কথায়, 'জন বারলা যদি এখানকার মানুষের আওয়াজ তুলে থাকে, তাহলে ক্ষতি কী? তারা যদি দাবি করে থাকে তাহলে অস্বাভাবিক কিছু নয়। পার্টির একটা স্ট্যান্ড আছে সেটা পার্টি পরে ভেবে দেখবে।' দিলীপের এই মন্তব্যের পরই জল্পনা ছড়িয়েছে রাজনৈতিক মহলে। প্রশ্ন উঠছে, তাহলে কি বিজেপি উত্তরবঙ্গ ও জঙ্গলমহলকে নিয়ে আলাদা রাজ্যের দাবিকে সমর্থন করছে? এরপরই বঙ্গ ভঙ্গের বিরোধিতায় সরব হয়েছেন বিজেপি নেতারাও।

বন্ধ করুন