বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > নিজের গড়েই অপসারিত শুভেন্দু অধিকারী, তাঁর জায়গায় এলেন সৌমেন মহাপাত্র
শুভেন্দু অধিকারী (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)
শুভেন্দু অধিকারী (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)

নিজের গড়েই অপসারিত শুভেন্দু অধিকারী, তাঁর জায়গায় এলেন সৌমেন মহাপাত্র

  • আর তা নিয়ে এখন পূর্ব মেদিনীপুরে ঢি ঢি পড়ে গিয়েছে। জোর চর্চা শুরু হয়েছে এই নিয়ে।

নিজের গড়েই এবার পদ হারালেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। আর তা নিয়ে এখন পূর্ব মেদিনীপুরে ঢি ঢি পড়ে গিয়েছে। জোর চর্চা শুরু হয়েছে এই নিয়ে। ইতিমধ্যেই দাবি উঠেছিল, কাঁথি কন্টাই সমবায় ব্যাঙ্কের চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণের। তার জন্য অনাস্থা আনা হয়েছে। কিন্তু তার আগেই স্বাধীনতা সংগ্রামের স্মৃতি বিজড়িত তাম্রলিপ্ত জনকল্যাণ সমিতির সভাপতি পদ থেকে অপসারিত হলেন শুভেন্দু অধিকারী। আর তার জায়গায় নয়া সভাপতি হলেন রাজ্যের সেচমন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র। ২০১২ সাল থেকে এই পদে ছিলেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী।

পূর্ব মেদিনীপুরের স্বাধীনতা সংগ্রাম এবং সংগ্রামীদের স্মৃতিবিজড়িত বিষয়গুলি নিয়ে তৈরি হয়েছিল তাম্রলিপ্ত জনকল্যাণ সমিতি স্মৃতিসৌধ। ঐতিহ্যবাহী এই সমিতির সভাপতি পদে ছিলেন প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। এবার তিনি রাজ্যের বিরোধী দলনেতা হলেও সেখান থেকে তাঁকে সরতে হল। এই জনকল্যাণ সমিতির সাধারণ সভায় নতুন সভাপতির নাম প্রস্তাব করেন কোষাধ্যক্ষ সোমনাথ বেরা। আর তাতে সমর্থন করেন সহ–সম্পাদক দীপেন্দ্র নারায়ণ রায়। তারপরেই সাধারণসভায় সর্বসম্মতিক্রমে নতুন সভাপতি হলেন রাজ্যের মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র। আগামী একসপ্তাহের মধ্যে নতুন কমিটি তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছেন সৌমেনবাবু।

উল্লেখ্য, এখানের প্রয়াত স্বাধীনতা সংগ্রামী ছিলেন সুশীল ধাড়া। তিনিই তমলুকের নিমতৌড়িতে স্বাধীনতা সংগ্রামীদের স্মৃতি রক্ষার্থে গড়ে তুলেছিলেন তাম্রলিপ্ত জনকল্যাণ সমিতি স্মৃতি সৌধ। এখন সেই সমিতির সদস্য সংখ্যা ৬৮ জন। গত ৬ জুলাই এই সমিতির সভাপতি পদের মেয়াদ শেষ হয়েছিল। তারপর সেখানের সাধারণসভা করে সরিয়ে দেওয়া হয় শুভেন্দু অধিকারীকে। শুভেন্দুকে অপসারণ করা হলেও তাঁর কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে তিনি বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা হয়েছেন। তবে এই সমিতি থেকে তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হল।

বন্ধ করুন