বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হঠাৎ ঝাঁকুনি, তার পরই ভেসে এল আর্তনাদ, জানালেন দুর্ঘটনাগ্রস্ত ট্রেনের যাত্রী
দুর্ঘটনাগ্রস্ত ট্রেনটির কয়েকটি কামরা।
দুর্ঘটনাগ্রস্ত ট্রেনটির কয়েকটি কামরা।

হঠাৎ ঝাঁকুনি, তার পরই ভেসে এল আর্তনাদ, জানালেন দুর্ঘটনাগ্রস্ত ট্রেনের যাত্রী

  • ট্রেনের দুর্ঘটনাগ্রস্ত কামরা এক যাত্রী বলেন, ‘তখন বিকেল ৫টা। দিনের আলো কমে এসেছে। হঠাৎই জোরে ঝাঁকুনি দিয়ে ওঠে ট্রেন। তার পর গোটা ট্রেন থেকে ভেসে আসে আর্তনাদ।

হঠাৎই এক ঝাঁকুনি। তার পরই গোটা ট্রেন জুড়ে তীব্র আর্তনাদ। এমনই অভিজ্ঞতার কথা জানালেন ময়নাগুড়িতে বেলাইন বিকানের – গুয়াহাটি এক্সপ্রেসের এক যাত্রী। প্রাণে বেঁচে যাওয়ায় ঈশ্বরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার নির্দিষ্ট সময় সারণী মেনেই চলছিল বিকানের – গুয়াহাটি এক্সপ্রেস। নিউ জলপাইগুড়ি ছাড়ার পর দোমোহনি ও নিউ ময়নাগুড়ির মাঝখানে লাইন থেকে ছিটকে পড়ে ট্রেনটির অন্তত ৪টি কামরা। তার মধ্যে ২টি কামরা একে অপরের ওপরে উঠে যায়। দুর্ঘটনাগ্রস্ত একটি কামরা থেকে ইতিমধ্যে ৩ জনের দেহ উদ্ধার হয়েছে বলে জানিয়েছেন জলপাইগুড়ির জেলাশাসক মৌমিতা গোদালা বসু।

ট্রেনের দুর্ঘটনাগ্রস্ত কামরা এক যাত্রী বলেন, ‘তখন বিকেল ৫টা। দিনের আলো কমে এসেছে। হঠাৎই জোরে ঝাঁকুনি দিয়ে ওঠে ট্রেন। তার পর গোটা ট্রেন থেকে ভেসে আসে আর্তনাদ। কী হয়েছে বুঝতেই বেশ কিছুটা সময় কেটে যায়। তার পর ট্রেন থেকে বেরনোর চেষ্টা করতে থাকেন দুর্ঘটনাগ্রস্ত কামরার যাত্রীরা। কিছুক্ষণের মধ্যেই রাতের অন্ধকার নামে। ফলে কামরার মধ্যে ঠিক কতজন আটকে রয়েছেন তা বোঝা যায়নি।’

দুর্ঘটনার পর একযোগে উদ্ধারকাজে নেমেছে রাজ্য সরকার ও রেল। ইতিমধ্যে NJP থেকে ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন রেলের আধিকারিকরা। উদ্ধারকারী ট্রেন নিয়ে রওনা হয়েছেন তাঁরা। দুর্ঘটনাগ্রস্ত ট্রেনটির ২টি কামরা একে অপরের ওপরে উঠে গিয়েছে। সেখান থেকে যাত্রীদের উদ্ধার করতে বিশেষ ক্রেন ঘটনাস্থলে আনার ব্যবস্থা হচ্ছে।

 

বন্ধ করুন