বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মদের আসরে তুমুল বচসা, শান্তিনিকেতনে পিটিয়ে খুন যুবককে, গ্রেফতার অভিযুক্ত
যুবককে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ।
যুবককে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ।

মদের আসরে তুমুল বচসা, শান্তিনিকেতনে পিটিয়ে খুন যুবককে, গ্রেফতার অভিযুক্ত

  • বেদম প্রহারের জেরেই প্রাণ হারাতে হয়েছে পশুরামকে। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত স্থানীয় যুবক সম্রাট হাঁসদা। এই সম্রাট সেদিন পশুরামকে লাঠি দিয়ে প্রচণ্ড মারধর করেছিল। সম্রাট হাঁসদাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

মদের আসরে তুমুল বচসা। তার জেরে এক যুবককে পিটিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠল স্থানীয় আর এক যুবকের বিরুদ্ধে। প্রতিবেশীকে পিটিয়ে খুন করার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে ওই যুবককে। এই ঘটনা ঘটেছে শান্তিনিকেতনে। ছেলের মৃত্যুর কঠোর সাজার দাবি করেছেন বাবা। পুলিশের কাছে খুনের অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

ঠিক কী ঘটেছে শান্তিনিকেতনে?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, মৃত যুবকের নাম পশুরাম লোহার। মদের আসরে তাঁর সঙ্গে কয়েকজনের বচসা হয়েছিল। তখনই তাঁকে লাঠি দিয়ে বেদম প্রহার করা হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে শান্তিনিকেতন থানার পুলিশ। আতঙ্কে মৃতের পরিবারের লোকজন।

কী নিয়ে বচসা হয়েছিল?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, শান্তিনিকেতন থানা এলাকার বাগানপাড়া গ্রামে ১৫ দিন আগে মদের আসর বসেছিল। সেখানে বচসা–হাতাহাতি হয়েছিল। তখনই পশুরাম লোহারকে লাঠি দিয়ে পেটানো হয়। পশুরামকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হয়। তখন বোলপুর থেকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে ও হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।

ঠিক কী অভিযোগ পরিবারের?‌ পরিবার সূত্রে খবর, বেদম প্রহারের জেরেই প্রাণ হারাতে হয়েছে পশুরামকে। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত স্থানীয় যুবক সম্রাট হাঁসদা। এই সম্রাট সেদিন পশুরামকে লাঠি দিয়ে প্রচণ্ড মারধর করেছিল। সম্রাট হাঁসদাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

বন্ধ করুন