বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ‘‌আমাদের শিক্ষামন্ত্রী অষ্টম হয়েছে’‌ , মাধ্যমিকের ফলে উঠে এল ব্রাত্য বসুর নাম
বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর হাইস্কুলের ছাত্র ব্রাত্য বসু।

‘‌আমাদের শিক্ষামন্ত্রী অষ্টম হয়েছে’‌ , মাধ্যমিকের ফলে উঠে এল ব্রাত্য বসুর নাম

  • আজ, শুক্রবার মাধ্যমিকের ফলপ্রকাশ হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, ৬৮৬ পেয়ে অষ্টম হয়েছে বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর হাইস্কুলের ছাত্র ব্রাত্য বসু। ঘটনাচক্রে, রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীর নামও ব্রাত্য বসু৷ আর এই ছেলেকেও মজা করে শিক্ষামন্ত্রী বলে ডাকে বন্ধুরা।

বন্ধুরা মজা করে ডাকত, আমাদের শিক্ষামন্ত্রী৷ সেই মজা সে নিজেও উপভোগ করত। এমন মজা করার কারণ হল তার নামও ব্রাত্য বসু৷ রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে নামের হুবহু মিল রয়েছে। এবার সেই নাম চমকে দিল গোটা জেলাকে। হ্যাঁ, মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ হতেই দেখা যায় বিষ্ণুপুরের ব্রাত্য বসুই অষ্টম স্থান অধিকার করেছে৷

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ আজ, শুক্রবার মাধ্যমিকের ফলপ্রকাশ হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, ৬৮৬ পেয়ে অষ্টম হয়েছে বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুর হাইস্কুলের ছাত্র ব্রাত্য বসু। ঘটনাচক্রে, রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীর নামও ব্রাত্য বসু৷ আর এই ছেলেকেও মজা করে শিক্ষামন্ত্রী বলে ডাকে বন্ধুরা। আর এই ফলাফল প্রকাশ্যে আসতেই সবাই বলে উঠল, ‘‌আমাদের শিক্ষামন্ত্রী অষ্টম হয়েছে’‌।

ঠিক কী বলছেন ছাত্র ব্রাত্য বসু?‌ মাধ্যমিকে অষ্টম হওয়া ব্রাত্য বসু জানাল, ‘‌আমার দারুণ লাগছে। আশা করেছিলাম ভাল হবে। তবে এতটা আশা করেনি। আমার বায়োলজি, ফিজিক্সের মতো বিজ্ঞানের বিষয়গুলিই বেশি ভাল লাগে। তাই ভবিষ্যতে চিকিৎসক হতে চাই। দিনে সাত–আটঘণ্টা পড়তাম। আর রোজ বিকেলে পাড়ার মাঠে খেলতাম। বন্ধুরা মজা করে শিক্ষামন্ত্রী বলে ডাকে। এবার আরও ডাকবে।’‌

ব্রাত্যর বাবা চণ্ডীদাস বসু প্রাক্তন সেনাকর্মী৷ তিনি বলেন, ‘‌ছেলে বরাবরই স্কুল জীবনের সব পরীক্ষায় এক থেকে তিনের মধ্যে থেকেছে৷ আমার ভাই পেশায় চিকিৎসক৷ ওই ছেলের নামকরণ করেছিল৷ তখন কি আর জানতাম রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে ওর নাম মিলে যাবে!’‌‌ বিষ্ণুপুরে এখন মানুষজন বলছে—‘‌আমাদের শিক্ষামন্ত্রী অষ্টম হয়েছে।’‌

বন্ধ করুন