বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সম্প্রীতি উড়ালপুলে চাকা ফেটে উলটে গেল তীর্থযাত্রী বোঝাই গাড়ি, আহত অন্তত ১২
সম্প্রীতি উড়ালপুলে চাকা ফেটে উলটে গেল তীর্থযাত্রী বোঝাই গাড়ি

সম্প্রীতি উড়ালপুলে চাকা ফেটে উলটে গেল তীর্থযাত্রী বোঝাই গাড়ি, আহত অন্তত ১২

  • ধবার এই দুর্ঘটনায় আহতদের বেহালা বিদ্যাসাগর হাসপাতাল ও মহেশতলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের চোট গুরুতর বলে জানা গিয়েছে।

তারকেশ্বরে পুজো দিতে যাওয়ার পথে দক্ষিণ ২৪ পরগনার মহেশতলায় সম্প্রীতি উড়ালপুলে এক পথদুর্ঘটনায় আহত হলেন ১৪ জন তীর্থযাত্রী। বুধবার এই দুর্ঘটনায় আহতদের বেহালা বিদ্যাসাগর হাসপাতাল ও মহেশতলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের চোট গুরুতর বলে জানা গিয়েছে।

এক আহত যাত্রী হাসপাতালে জানিয়েছেন, দক্ষিণ ২৪ পরগনার বুরুল থেকে তারকেশ্বর যাচ্ছিলেন তাঁরা। একটি মাইক্রোট্রাকে ছিলেন ১০ – ১২ জন। সকাল ৮টা নাগাদ মহেশতলায় সম্প্রীতি উড়ালপুলে মোল্লার গেটের কাছে গাড়িটির পিছনের একটি চাকা ফেটে যায়। এর জেরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উলটে যায় গাড়িটি। ছিটকে পড়েন গাড়ির আরোহীরা। এই ঘটনায় আহতদের উদ্ধার করে বজবজ হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। গুরুতর চোট থাকায় ৮ জনকে বেহালা বিদ্যাসাগর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

উদ্বোধনের পর থেকেই সম্প্রীতি উড়ালপুলে ঘটে চলেছে একের পর এক দুর্ঘটনা। এতে প্রাণ গিয়েছে বেশ কয়েকজনের। এদিন অবশ্য প্রাণঘাতী দুর্ঘটনা ঘটেনি। পুলিশের দাবি, উড়ালপুলের ওপর গতিসীমা লেখা থাকলেও তা মানেন না চালকরা। তার জেরেই দুর্ঘটনা ঘটে। কিন্তু প্রশ্ন হল, গাড়ির গতি নিয়ন্ত্রণের দায় কার? গতিসীমা নিয়ন্ত্রণ করার কী ব্যবস্থা করেছে পুলিশ? গতিসীমা না মানায় কি কারও শাস্তি হয়েছে?

 

বন্ধ করুন