বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > চাকরি দেওয়ার নামে টাকা নেওয়ার অভিযোগ, তৃণমূল নেতাকে পুলিশে দিলেন গ্রামবাসীরাই
মালদায় গ্রেফতার তৃণমূল নেতা। প্রতিকি ছবি

চাকরি দেওয়ার নামে টাকা নেওয়ার অভিযোগ, তৃণমূল নেতাকে পুলিশে দিলেন গ্রামবাসীরাই

  • অভিযোগকারিনী জানিয়েছেন, প্রেমিকের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ তুলে মাস কয়েক আগে তাঁর বাড়ির সামনে বিয়ের দাবিতে ধরনায় বসেছিলেন ওই তরুণী। তখন তাঁর সঙ্গে পরিচয় হয় সোহেল আখতারের।

চাকরি দেওয়ার নাম করে এক তরুণীর কাছ থেকে টাকা হাতানোর অভিযোগে এক তৃণমূল ছাত্র নেতাকে পুলিশের হাতে তুলে দিল জনতা। ঘটনা মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরের শিমুলিয়ার। সোহেল আখতার নামে ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

অভিযোগকারিনী জানিয়েছেন, প্রেমিকের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ তুলে মাস কয়েক আগে তাঁর বাড়ির সামনে বিয়ের দাবিতে ধরনায় বসেছিলেন ওই তরুণী। তখন তাঁর সঙ্গে পরিচয় হয় সোহেল আখতারের। তরুণীকে সরকারি চাকরি পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় সে। এর পর তাঁর কাছ থেকে তিন দফায় ২৬ হাজার টাকা আদায় করে ওই যুবক। কিন্তু চাকরি হয়নি। এর পর ওই তৃণমূল নেতা পুলিশকে ম্যানেজ করার নাম করে তরুণীর কাছে আরও ২৬ হাজার টাকা চায়। তখনই তরুণী বুঝতে পারেন তিনি প্রতারিত হয়েছেন। সোমবার যুবক গ্রামে পৌঁছলে তাঁকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেন গ্রামবাসীরা।

তৃণমূলের তরফে জানানো হয়েছে, ওই যুবক তৃণমূল ছাত্র পরিষদের ব্লক সহ সভাপতি ছিলেন। কিন্তু বর্তমানে সে কোনও পদে নেই।

স্থানীয় বিজেপি এই ঘটনায় তৃণমূলকে কটাক্ষ করে বলেছে, তৃণমূলের বড় নেতাদের মতো ছোট নেতারাও মানুষকে প্রতারিত করে টাকা তুলতে শিখে গিয়েছে। সারদার সময় থেকে এটা চলছে। তবে এখন বিজেপি পাশে থাকায় মানুষ প্রতিবাদ করার সাহস পাচ্ছে।

 

বন্ধ করুন