বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মোবাইল ফোনের আওয়াজ শুনে চলন্ত ট্রেনের শৌচাগার থেকে উদ্ধার যাত্রীর দেহ

মোবাইল ফোনের আওয়াজ শুনে চলন্ত ট্রেনের শৌচাগার থেকে উদ্ধার যাত্রীর দেহ

ফাইল ছবি

সারা রাত চেষ্টা করেও যোগাযোগ করতে না পারায় মালদা টাউন স্টেশনের রেল পুলিশ আধিকারিককে বিষয়টি জানান পরিবারের সদস্যরা। ট্রেন মালদা টাউনে পৌঁছলে শুরু হয় তল্লাশি। কিন্তু যে কামরায় সৌরভবাবুর থাকার কথা সেখানে তাঁকে পাওয়া যায়নি। পাওয়া যায়নি তাঁর ব্যাগপত্তর।

হাওড়াগামী ব্রহ্মপুত্র মেলের শৌচাগারের দরজা ভেঙে স্থানীয় যুবকের দেহ উদ্ধার হল মালদা রেল পুলিশ। শনিবার এই ঘটনায় রহস্য ঘনিয়েছে। যুবকের পরিবারের দাবি, মাদক খাইয়ে সামগ্রী লুঠ করে খুন করা হয়েছে যুবককে। নিহতের নাম সৌরভ রায় তিনি। মালদার কালিয়াচকের বাসিন্দা।

পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, সৌরভবাবু বিড়ি ব্যবসায়ী। ব্যবসার কাজে সম্প্রতি অসম গিয়েছিলেন তিনি। বাড়ি ফেরার জন্য শুক্রবার ট্রেনে ওঠেন। ওই দিন রাত ৮টা পর্যন্ত পরিবারের সঙ্গে কথাও হয় তাঁর। এর পর সৌরভবাবুর ফোন বেজে গেলেও তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। সারা রাত চেষ্টা করেও যোগাযোগ করতে না পারায় মালদা টাউন স্টেশনের রেল পুলিশ আধিকারিককে বিষয়টি জানান পরিবারের সদস্যরা। ট্রেন মালদা টাউনে পৌঁছলে শুরু হয় তল্লাশি। কিন্তু যে কামরায় সৌরভবাবুর থাকার কথা সেখানে তাঁকে পাওয়া যায়নি। পাওয়া যায়নি তাঁর ব্যাগপত্তর। এর পর মোবাইল ফোনের আওয়াজ শুনে কামরার শৌচাগারের দরজা ভেঙে সৌরভ রায়ের দেহ উদ্ধার করেন পুলিশকর্মীরা। হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

পরিবারের দাবি, সৌরভবাবুকে মাদক খাইয়ে তাঁর সামগ্রী লুঠ করা হয়েছে। সম্ভবত মাত্রাতিরিক্ত মাদক দেওয়ায় মৃত্যু হয়েছে তাঁর। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে মালদা টাউন জিআরপি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে ঘটনা স্পষ্ট হবে বলে জানিয়েছে তারা।

 

বন্ধ করুন