বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মাওবাদীদের হাতে মৃত ও নিরুদ্দেশ আর্থিক সাহায্য, সরকারি চাকরির ঘোষণা মমতার
প্রশাসনিক পর্যালোচনা বৈঠকে মঙ্গলবার খড়্গপুরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (ছবি সৌজন্য এএনআই)
প্রশাসনিক পর্যালোচনা বৈঠকে মঙ্গলবার খড়্গপুরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (ছবি সৌজন্য এএনআই)

মাওবাদীদের হাতে মৃত ও নিরুদ্দেশ আর্থিক সাহায্য, সরকারি চাকরির ঘোষণা মমতার

  • যে স্থানীয় যুবক-যুবতিরা জুনিয়র কনস্টেবল পদে পাঁচ বছর পূর্ণ করেছেন, তাঁদের কনস্টেবল পদে উন্নীত করা হচ্ছে।

জঙ্গলমহলে আবারও মাওবাদীদের আনাগোনা শুরু হয়েছে বলে একাংশের দাবি। মিলেছে পোস্টারও। তারইমধ্যে মাওবাদী হানায় মৃত বা নিখোঁজ মানুষের পরিবারকে আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা করল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। একইসঙ্গে তাঁদের পরিবারের একজন সদস্যকে স্পেশাল হোমগার্ডের চাকরি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল নবান্ন।

প্রশাসনিক পর্যালোচনা বৈঠকে মঙ্গলবার খড়্গপুরে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে তিনি জানান, অনেকেই মাওবাদীদের হাতে প্রাণ হারিয়েছেন। আবার অনেকে নিখোঁজ হয়ে গিয়েছেন। দীর্ঘদিন তদন্তের পরও তাঁদের খোঁজ মেলেনি। ১০ বছরের বেশি সময় ধরে এরকম যাঁরা নিখোঁজ আছেন, তাঁদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য দেওয়া হবে। পাশাপাশি পরিবারের এক সদস্যকে চাকরির দেবে রাজ্য।

মমতা বলেন, ‘আপনারা জানেন, জঙ্গলমহলের যাঁরা মাওবাদীদের হাতে খুন হয়েছিলেন, তাঁরা আজও নিরুদ্দেশ আছেন। তাঁদের কোনও খবর পাওয়া যায়নি। ১০ বছর হয়ে গিয়েছে, কোনও খবর পাওয়া যায়নি। যাঁদের ১০ বছরেও খবর পাওয়া যায়নি, ফিরে আসেননি, তদন্ত করেও কিছু পাওয়া যায়নি, তাঁদের চার লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ (আর্থিক অনুদান) এবং স্পেশাল হোমগার্ডের চাকরি দেওয়া হবে।’ সেইমতো মাওবাদীদের হাতে নিহত এক ব্যক্তির পরিবারের হাতে মঙ্গলবার চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দেওয়া হয়।

এছাড়া জঙ্গলমহলে মাওবাদী দমনে জঙ্গলমহলেরর যে স্থানীয় যুবক-যুবতিরা জুনিয়র কনস্টেবল পদে পাঁচ বছর পূর্ণ করেছেন, তাঁদের কনস্টেবল পদে উন্নীত করা হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, চলতি বছর ৪,২৮৪ জনের পাঁচ বছর পূর্ণ হয়েছে। চারজনকে মঙ্গলবারই প্রমোশনের চিঠি দেওয়া হয়েছে। বাকিদের দুর্গাপুজোর আগে সেই চিঠি দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্রকে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

বন্ধ করুন