বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > খারাপ ফল হওয়া উত্তরের তিন জেলাতেই সংগঠনের নজরদারির দায়িত্বে গৌতম, কোন্দল মিটবে?
গৌতম দেব, প্রাক্তন মন্ত্রী (ফাইল ছবি)
গৌতম দেব, প্রাক্তন মন্ত্রী (ফাইল ছবি)

খারাপ ফল হওয়া উত্তরের তিন জেলাতেই সংগঠনের নজরদারির দায়িত্বে গৌতম, কোন্দল মিটবে?

  • রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, মাঝে উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রীর পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল গৌতম দেবকে। তবে তিনি বরাবরই নেত্রীর প্রতি অনুগত। এবার কার্যত সেই গৌতমেই আস্থা রাখলেন নেত্রী।

এবারের ভোটে পরাজিত হয়েছেন তিনি। তারপর শিলিগুড়ি কর্পোরেশনের প্রশাসক বোর্ডের চেয়ারম্যান পদে বসানো হয়েছে তাঁকে। এবার প্রাক্তন মন্ত্রী গৌতম দেবকে উত্তরের তিনজেলার সংগঠনের বিশেষ দায়িত্বে দিলেন খোদ তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দল সূত্রে খবর, গত শনিবার কলকাতায় তৃণমূলের কর্মসমিতির বৈঠকে উত্তরবঙ্গ থেকে গৌতম দেব উপস্থিত ছিলেন। নেত্রী ওই বৈঠকেই গৌতমের উপর বিশেষ সাংগঠনিক দায়িত্ব অর্পণ করেন। ঠিক কী কী দায়িত্ব দেওয়া হয়েছেন গৌতম দেবকে?

দল সূত্রে খবর, জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ার জেলার সংগঠনের বিশেষ নজরদারির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে গৌতম দেবকে। পাশাপাশি দার্জিলিং জেলার সংগঠন পরিচালনার পরামর্শ দেওয়ার ভারও তাঁর উপরেই থাকছে। এর সঙ্গেই শিলিগুড়ি শহরে সংগঠনকে আরও মজবুত করার দায়িত্ব তাঁর উপর বর্তেছে। পাশাপাশি উত্তরবঙ্গে তৃণমূলের সংগঠনকে আরও জোরদার করা, দলীয় কাজ পরিচালনা ও হার জিতের কথা না ভেবে নিজের কাজ মন দিয়ে করার ব্যাপারে খোদ নেত্রী পরামর্শ দিয়েছেন গৌতম দেবকে। পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের পুরভোটে যাতে তৃণমূল ভালো ফলাফল করতে পারে সেই দায়িত্বও বর্তেছে গৌতম দেবের হাতে।

প্রসঙ্গত, এর আগেও গৌতম দেব তৃণমূলের উত্তরবঙ্গের কোর কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন। কিন্তু সেই সময় দলের অন্দরের নানা কোন্দলের জেরে তিনি কতটা সফলভাবে কাজ করতে পেরেছিলেন সেই প্রশ্নটা থেকেই গিয়েছে। এদিকে এসবের মধ্যে গত লোকসভা নির্বাচনে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে তৃণমূলের ভরাডুবি হয়। এবারের বিধানসভা ভোটেও আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি ও দার্জিলিংয়ে তৃণমূলের ফলাফল একেবারেই ভালো হয়নি। এবার কোচবিহার বাদ দিয়ে বাকি তিন জেলায় গৌতমের হাতেই দলের স্টিয়ারিং তুলে দিলেন খোদ নেত্রী। এমনকী দলের একাধিক প্রবীন নেতার কথা উল্লেখ করতে গিয়ে গৌতম দেবের কথাও উল্লেখ করেছেন তিনি। তবে গৌতম দেবের কথায়, ‘নেত্রী যখন যা নির্দেশ দেন পালন করি। বৈঠকের কথা দলের আভ্যন্তরীন বিষয়। এটা আলোচনা করার জন্য নয়।’

 

বন্ধ করুন