বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'পুরী' তৈরি হচ্ছে দিঘায়, জগন্নাথ মন্দির তৈরির জন্য ১২৮ কোটি বরাদ্দ মমতাদের
পরীর জগন্নাথ মন্দির। (ফাইল ছবি, সৌজন্যে পিটিআই)

'পুরী' তৈরি হচ্ছে দিঘায়, জগন্নাথ মন্দির তৈরির জন্য ১২৮ কোটি বরাদ্দ মমতাদের

মন্দিরটি তৈরির জন্য ১২৮ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

পুরীর আদলে দিঘায় জগন্নাথ মন্দির গড়ে তুলবে রাজ্য সরকার। ইতিমধ্যে মন্দিরের নকশা তৈরি হয়ে গিয়েছে। মন্দির তৈরির জন্য টেন্ডার ডাকা হয়েছে। খুব তাড়াতাড়ি কাজ শুরু হবে। এই মন্দির তৈরি হয়ে গেলে শুধু দিঘায় পর্যটকদের সমাগম আরও বাড়বে বলেই মনে করা হচ্ছে।

প্রশাসন সূত্রে খবর, জগন্নাথ মন্দির তৈরির জন্য ৮ কোটি টাকা ব্যয়ে জমি কিনে নিয়েছে রাজ্য সরকার। মন্দিরটি তৈরির জন্য ১২৮ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। আড়াই একর জমির ওপর গড়ে উঠবে এই মন্দির। জগন্নাথ ধাম ও সংস্কৃতি চর্চার কেন্দ্র হিসাবে গড়ে উঠবে এই দিঘা। ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল দিঘার সমুদ্র সৈকত। ফের সেটিকে সাজিয়ে তোলা হয়েছে। পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের আদলে এখানে মন্দির তৈরি হলে এই দিঘা ধর্মীয় পর্যটনক্ষেত্র হিসেবেও বিবেচিত হবে বলে অনেকেরই অভিমত।

ইতিমধ্যে দিঘা–মন্দারমণি–তাজপুরকে নিয়ে সার্কিট ট্যুরিজম তৈরি হয়েছে। এই সব জায়গায় সমুদ্র সৈকতের আকর্ষণে প্রচুর মানুষের সমাগম হয়। দিঘায় জগন্নাথ মন্দির তৈরি হলে আগামিদিনে বাইরে থেকেও প্রচুর মানুষ দিঘায় আসবেন বলে ধারণা। এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, ‘‌সবাই পুরীতে যায় জগন্নাথদেবকে দর্শনের জন্য। কিন্তু দিঘায় কেন এই রকম মন্দির হবে না?‌ সমুদ্রের ধারে একটি মন্দির থাকা ভালো।’‌ একইসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, এই মন্দির তৈরি হয়ে গেলে সারা পৃথিবীতে বন্দিত হবে বাংলা। সেইসঙ্গে পর্যটন শিল্পেরও বিকাশ হবে।

বন্ধ করুন