বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > 'মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক মানতে পারেননি', যুবককে বাড়িতে ঢেকে 'খুন' প্রেমিকার বাবার
'মেয়ের সঙ্গে মানতে পারেননি সম্পর্ক', যুবককে বাড়িতে ঢেকে 'খুন' প্রেমিকার বাবার (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)
'মেয়ের সঙ্গে মানতে পারেননি সম্পর্ক', যুবককে বাড়িতে ঢেকে 'খুন' প্রেমিকার বাবার (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)

'মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক মানতে পারেননি', যুবককে বাড়িতে ঢেকে 'খুন' প্রেমিকার বাবার

কিছুদিন আগে সঞ্জয় টোটনকে প্রাণে মারার হুমকি দেন।

মেয়ের সঙ্গে প্রতিবেশী যুবকের সম্পর্ক মেনে নিতে পারেননি বাবা। অভিযোগ, ওই যুবককে প্রাণে মারার হুমকিও দিয়েছিলেন। শুধু কথার কথাই নয়, মেয়ের প্রেমিককে বাড়িতে ডেকে নিয়ে গিয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠল বাবার বিরুদ্ধে।

মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের ইংরেজবাজার থানা এলাকার লক্ষ্মীপুর ককলামারি গ্রামে। জানা গিয়েছে, মৃত যুবকের নাম টোটন মণ্ডল (‌২১)‌। সোমবার থেকেই তাঁকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। মঙ্গলবার দুপুরে প্রেমিকার বাড়ির পিছন দিকে টোটনের নিথর দেহ উদ্ধার করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। মৃতদেহে একাধিক আঘাতের চিহ্ন ও গলার কাছে দড়ি পেঁচানোর দাগ রয়েছে। এরপরে স্থানীয় বাসিন্দাই পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ এসে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

তদন্ত শুরু করেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পেরেছে, ওই যুবকের সঙ্গে প্রতিবেশী এক তরুণীর চার বছর ধরে সম্পর্ক ছিল। এই সম্পর্ক নিয়ে ছেলের বাড়িতে তেমন আপত্তি না থাকলেও সম্পর্কের কথা মেনে নিতে পারেননি মেয়ের বাবা সঞ্জয় মণ্ডল। কিছুদিন আগে সঞ্জয় টোটনকে প্রাণে মারার হুমকি দেন বলে অভিযোগ।

পরিবারের সদস্যদের দাবি, হুমকি পেয়ে কিছুটা ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন টোটন। গত সোমবার মেয়ের বাবা কথা বলতে চান টোটনের সঙ্গে। তাঁকে বাড়িতে আসতে বলেন। কিছুক্ষণ পর থেকেই টোটনের মোবাইল ফোন সুইচ অফ পাওয়া যায়। এরপর মঙ্গলবার যুবকের দেহ পাওয়া যায় তাঁর প্রেমিকার বাড়ির পিছনের দিক থেকে। পরিবারের তরফে অভিযোগ, টোটনকে পিটিয়ে খুন করে আমবাগানে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

বন্ধ করুন