ছাগল ধর্ষণে অভিযুক্ত কৃষ্ণ হালদার
ছাগল ধর্ষণে অভিযুক্ত কৃষ্ণ হালদার

দিনে দুপুরে ফাঁকা বাড়িতে ছাগলকে ধর্ষণ করতে গিয়ে ধরা পড়ল যুবক

  • ঘটনার কথা স্বীকার করে অভিযুক্ত জানিয়েছেন, মত্ত অবস্থায় রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলাম। কী করছি নিজেই বুঝতে পারিনি।

গৃহপালিত একটি ছাগলকে ধর্ষণ করতে গিয়ে হাতানাতে ধরা পড়লেন এক যুবক। কৃষ্ণ হালদার নামে ওই যুবককে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন গ্রামবাসীরা। ঘটনা পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনার পূর্ব সাহাপুর গ্রামের।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ছাগল ঘরে বেঁধে মঙ্গলবার মাঠে কাজে গিয়েছিলেন পূর্বা সাহাপুর গ্রামের বাসিন্দা ভোম্বল মান্ডি নামে এক ব্যক্তি। কিছুক্ষণ পর সেখান দিয়ে মত্ত অবস্থায় যাচ্ছিল কৃষ্ণ হালদার নামে ওই ব্যক্তি। ফাঁকা বাড়িতে ছাগলটিকে ধর্ষণ করে সে। পথচলতি মানুষজন ছাগলের চিৎকার শুনে ভাবেন কুকুর ঢুকেছে। কুকুর তাড়াতে ঘরে ঢুকে দেখেন ছাগলটিকে চেপে ধরে নির্যাতন চালাচ্ছে কৃষ্ণ। এর পরই শুরু হয় ধোলাই।

বেশ কিছুক্ষণ ধরে গণধোলাইয়ের জেরে গুরুতর আহত হয় ওই যুবক। এর পুলিশে খবর দেন স্থানীয়রা। পুলিশকর্মীরা এসে কৃষ্ণ হালদারকে উদ্ধার করে নিয়ে যান। তাঁকে কালনা মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।

ঘটনার কথা স্বীকার করে অভিযুক্ত জানিয়েছেন, মত্ত অবস্থায় রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলাম। কী করছি নিজেই বুঝতে পারিনি। মানুষের মারে জ্ঞান ফেরে। কৃতকর্মের জন্য লজ্জিত বলে জানিয়েছেন তিনি।


বন্ধ করুন