বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সালিশি সভায় স্ত্রীর কাছে লাঞ্ছিত হয়ে যৌনাঙ্গ কেটে ফেললেন স্বামী
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

সালিশি সভায় স্ত্রীর কাছে লাঞ্ছিত হয়ে যৌনাঙ্গ কেটে ফেললেন স্বামী

  • ঘটনায় স্বামীর বিরুদ্ধে পালটা বধূ নির্যাতনের অভিযোগ দায়ের করেছেন স্ত্রী। তাঁর দাবি, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে তাঁর ওপর অত্যাচার করতেন খুরশেদ।

সালিশি সভায় স্ত্রীর ভর্ৎসনায় লাঞ্ছিত হয়ে নিজের যৌনাঙ্গ কেটে ফেললেন স্বামী। ঘটনার মানিকচকের নুরপুরের। খুরশেদ মোমেন নামে গুরুতর আহত ওই ব্যক্তি মালদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। 

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, নুরপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের শ্যামলাল পাড়ার বাসিন্দা খুরশেদের সঙ্গে বছর খানেক আগে বিয়ে হয়েছিল আসমেরি বিবির। বিয়ের পর থেকেই স্বামীর বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক নিয়ে দাম্পত্য কলহ চলছিল। এই নিয়ে সোমবার গ্রামে বসেছিল সালিশি সভা। সেখানেই নিজের যৌনাঙ্গ কেটে ফেলেন খুরশেদ। 

গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, সালিশি সভায় স্বামীকে অকথ্য গালিগালাজ করেছিলেন আসমেরি বিবি। গুরুতর আহত খুরশেদকে প্রথমে মানিকচক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে তাঁকে স্থানান্তরিত করা হয় মালদা মেডিক্যাল কলেজে। 

ঘটনায় স্বামীর বিরুদ্ধে পালটা বধূ নির্যাতনের অভিযোগ দায়ের করেছেন স্ত্রী। তাঁর দাবি, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে তাঁর ওপর অত্যাচার করতেন খুরশেদ। 

ঘটনায় হতবাক গ্রামবাসীরা। তাঁরা জানিয়েছেন, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগ বারবার অস্বীকার করেছেন খুরশেদ। তবে তা বিশ্বাস করতে রাজি ছিলেন না তাঁর স্ত্রী। 

 

বন্ধ করুন